আইসিবি ক্যাপিটাল ও সিকিউরিটিজের হিসাব খুলে দিতে চিঠি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

আইসিবি ক্যাপিটাল ও সিকিউরিটিজের হিসাব খুলে দিতে চিঠি

ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি) এর ২ সহযোগী প্রতিষ্ঠানের জব্দ করা ব্যাংক হিসাব খুলে দিতে বলা হয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) বৃহৎ করদাতা ইউনিট (এলটিইউ) এক চিঠিতে আইএফআইসি ব্যাংকের কাছে এই অনুরোধ জানিয়েছে।

প্রতিষ্ঠান দুটি হচ্ছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড ও আইসিবি সিকিউরিটিজ ট্রেডিং কোম্পানি লিমিটেড।

icb-logo

আইসিবির লোগো। ফাইল ছবি

আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট ও এলটিইউ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, প্রতিষ্ঠান দুটি বকেয়া ১২ কোটি ৮৬ লাখ টাকা জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কাছে জমা দিয়েছে। এর মধ্যে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড ৭৮ কোটি টাকা বকেয়া আয়করের বিপরীতে ৭ কোটি ৭৯ লাখ টাকা ও আইসিবি সিকিউরিটিজ ট্রেডিং কোম্পানি লিমিটেড ৫০ কোটি টাকার বিপরীতে ৫ কোটি ৭ লাখ টাকা পরিশোধ করে।

এরপরই এলটিইউ এর পক্ষ থেকে চিঠি দিয়ে জব্দ করা ব্যাংক হিসাব খুলে দেওয়ার অনুরোধ করা হয়।

এলটিইউ সূত্র জানায়,আইসিবির দুইটি প্রতিষ্ঠান প্রতিবছর এলটিইউতে আয়কর রিটার্ন দাখিল করে। পরে এলটিইউ তাদের আয়-ব্যয় (অ্যাসেসমেন্ট) খতিয়ে দেখে। এর মধ্যে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের ২০০২-২০০৩ অর্থবছর থেকে ২০১৫-১৬ অর্থবছর পর্যন্ত ৭ বছরে ৭৮ কোটি টাকা বকেয়া আয়কর পরিশোধ করেনি।

আর আইসিবি সিকিউরিটিজ ট্রেডিং কোম্পানি লিমিটেড ২০১০-২০১১ অর্থবছর পর্যন্ত ৫০ কোটি টাকার বকেয়া আয়কর পরিশোধ করেনি। বকেয়া কর আদায়ে এলটিইউ থেকে প্রতিবছরই এ ২ প্রতিষ্ঠানকে চিঠি দেওয়া হয়। কিন্তু তারপরও তাদের টনক নড়েনি।

সূত্র আরও জানায়, চলতি অর্থবছর দুইটি প্রতিষ্ঠানের প্রায় ১২৮ কোটি টাকা পরিশোধে বারবার তাগাদা দেওয়া হলেও তা দিতে গড়িমসি করে। সর্বশেষ ১৫ জুন বৃহস্পতিবার দুইটি প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব জব্দ করতে আইএফআইসি ব্যাংকে চিঠি দেয় এলটিইউ।

প্রতিষ্ঠান দুইটির বিশাল এ বকেয়া আয়করের কিছু কিছু ক্ষেত্রে দীর্ঘদিন ধরে প্রশ্ন তুলে আসছে। ব্যাংক হিসাব জব্দের পর ১৫ জুলাই প্রতিষ্ঠান দুইটি আপিল ট্র্যাইবুনালে যেতে আবেদন করে। আইন অনুযায়ী আপিল ট্র্যাইবুনালে যেতে হলে যেকোনো প্রতিষ্ঠানকে বকেয়া আয়করের ১০ শতাংশ পরিশোধ করতে হয়।

সূত্র আরো জানায়, আইন অনুযায়ী আপিল ট্র্যাইবুনালে ৬০ দিন অর্থাৎ ২ মাসের মধ্যে আপিল আপত্তি নিষ্পত্তি করতে হবে। বকেয়া আয়করের যে যে বিষয়ে আইসিবির আপত্তি আছে তা নিষ্পত্তি শেষে আইসিবির দুইটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান বকেয়া আয়কর পরিশোধ করতে হবে।

অর্থসূচক/গিয়াস/রহমত/এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ