'গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার’

সরকারের ফাস্ট ট্র্যাক প্রকল্পগুলোর মধ্যে কক্সবাজারে গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ প্রকল্প অন্যতম বলে জানিয়েছেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান।

আজ রোববার জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মোহাম্মদ ইলিয়াছের এক প্রশ্নের জবাবে জাতীয় সংসদকে এই কথা বলেন তিনি।

Sea Port

বাংলাদেশের কক্সবাজারে নির্মাণের জন্য প্রস্তাবিত গভীর সমুদ্র বন্দরের নকশা।

মন্ত্রী বলেন, দেশে একটি গভীর সমুদ্র বন্দর প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ২০০৯ সালে টেকনো-ইকনোমিক ফিসিবিলিটি স্টাডি করেছিল এই প্রকল্পের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান জাপানের ‘প্যাসিফিক কনসালট্যান্টস ইন্টারন্যাশনাল’ (পিসিআই)। সমীক্ষা প্রতিবেদনে কক্সবাজার জেলার সোনাদিয়ার ৩ ধাপে গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের প্রস্তাব করেছে পিসিআই।

শাজাহান খান বলেন, প্রথম পর্যায়ে ৫ বছর মেয়াদে বন্দর নির্মাণ; এরপর ২০৩৫ ও ২০৫৫ সাল নাগাদ যথাক্রমে এই প্রকল্পের দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

তিনি বলেন, জাইকার মাধ্যমে মাতার বাড়িতে একটি বহুমুখী গভীর সমুদ্র বন্দর স্থাপনের সম্ভাব্যতা সমীক্ষা পরিচালিত হচ্ছে। এই সমীক্ষা প্রতিবেদন পাওয়ার পর সার্বিক দিক বিবেচনা করে এর নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ