বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩২৭৩ কোটি ডলার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩২৭৩ কোটি ডলার

দেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩ হাজার ২৭৩ কোটি (৩২.৭৩ বিলিয়ন) মার্কিন ডলারে ছাড়িয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত বুধবার নাগাদ দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ এই পর্যায়ে পৌঁছায়।

দেশের প্রায় ৯ মাসের পণ্য আমদানির জন্য এই রিজার্ভ পর্যাপ্ত বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

Dollar-39781

ডলার।

গত মে মাসের শেষ দিকে রিজার্ভের পরিমাণ ছিল ৩২ দশমিক ২৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। অর্থাৎ গত ১৪ দিনে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৯ কোটি ডলার বেড়েছ। অন্যদিকে ২০১৬ সালের ১৪ জুনে থাকা রিজার্ভের তুলনায় এবারের রিজার্ভ ৩৩০ কোটি ডলার বেশি।

তৈরি পোশাক রপ্তানির ইতিবাচক ধারাবাহিকতা এবং বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকদের পাঠানো মুদ্রা দেশে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

প্রসঙ্গত, গত ৭ বছর ধরেই একটানা বেড়ে চলেছে রিজার্ভ। রেকর্ড পরিমাণের এই রিজার্ভ দিয়ে সরকারের বড় অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের চিন্তা করা হচ্ছে। অর্থমন্ত্রণালয় থেকে এই বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে মতাতমত চাওয়া হয়েছে।

রিজার্ভের একটি অংশ কিভাবে বিনিয়োগে আনা যায়- তা নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকও কৌশলপত্র তৈরির কাজ করছে।

মাস খানে আগেই বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, রমজানের আগে ডলারের দাম বাড়লে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যায়। আমাদের ৩২ বিলিয়ন ডলারের রিজার্ভ আছে। সেখান থেকে ২০০ বা ৪০০ মিলিয়ন ডলার ব্যাংকে দিলে আমাদের বিশেষ ক্ষতি নাই।

পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রয়োজনে আমরা রিজার্ভে থাকা ডলার ব্যবহার করবো। তাতে ডলারের দাম স্বাভাবিক হবে।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ