জার্মানিতে ৪০ হাজার ৬৯৩ কোটি টাকার পণ্য রপ্তানি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

জার্মানিতে ৪০ হাজার ৬৯৩ কোটি টাকার পণ্য রপ্তানি

চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জুলাই-মে মেয়াদে (প্রথম ১১ মাসে) জার্মানিতে ৫০৪ কোটি মার্কিন ডলার বা প্রায় ৪০ হাজার ৬৯৩ কোটি টাকার পণ্য করেছে বাংলাদেশ। যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ১৩ দশমিক ৫১ শতাংশ বেশি।

রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সর্বশেষ হালনাগাদ থেকে এই তথ্য জানা গেছে। এতে আরও জানানো হয়েছে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে জার্মানিতে মোট ৪৯৮ কোটি মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছিল বাংলাদেশ। এর মধ্যে ওই বছরের জুলাই-মে মেয়াদে জার্মানিতে পণ্য রপ্তানিতে বাংলাদেশের আয় হয়েছিল ৪৪৪ কোটি মার্কিন ডলার।

Loading Container

রপ্তানির জন্য জাহাজে নেওয়া হচ্ছে কন্টেইনার।

২০১৬-১৭ অর্থবছরের জুলাই-মে মেয়াদে চীনে দেশে ৮৮ কোটি ১৬ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলার বা ৭ হাজার ১১১ কোটি ৫১ লাখ টাকার পণ্য রপ্তানি করা হয়েছে। যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ২৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ বেশি।

চলতি অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে প্রতিবেশী দেশ ভারতে ৬৩ কোটি ৬০ লাখ মার্কিন ডলার বা ৫ হাজার ১৩৪ কোটি টাকার পণ্য রপ্তানি করা হয়েছে। যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ বেড়েছে।

২০১৬-১৭ অর্থবছরের জুলাই-মে মেয়াদে রাশিয়ায় ২৪ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার বা ১ হাজার ৯৭৩ কোটি ৬৯ লাখ টাকার পণ্য রপ্তানি করেছে বাংলাদেশ। যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৩৩ দশমিক ৫৩ শতাংশ বেশি।

জুন মাসে প্রকাশিত হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে সব ধরনের পণ্য রপ্তানিতে বৈদেশিক মুদ্রা আয় হয়েছিল মোট ৩ হাজার ৪২৫ কোটি ৭১ লাখ ৮০ হাজার ডলার। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ হাজার ৭০০ কোটি ডলার।

চলতি অর্থবছরের প্রথম ১১ মাস অর্থাৎ জুলাই-মে মেয়াদে রপ্তানি আয় লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৩ হাজার ৩৩৫ কোটি ৩০ লাখ মার্কিন ডলার। এর বিপরীতে আয় হয়েছে ৩ হাজার ১৭৯ কোটি ৭ লাখ ৫০ হাজার ডলার; যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪ দশমিক ৬৮ শতাংশ কম।

২০১৬-১৭ অর্থবছরের মে মাসে পণ্য রপ্তানিতে মোট আয় হয়েছে ৩০৬ কোটি ৯০ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার বা ২৪ হাজার ৭৫০ কোটি ৬২ লাখ টাকা। যা এই মাসের রপ্তানি আয় লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় ৮ দশমিক ৫২ শতাংশ কম। সদ্য সমাপ্ত মাসে ৩৩৫ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ