চট্টগ্রাম-কক্সবাজার-বান্দরবানে যান চলাচল শুরু
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার-বান্দরবানে যান চলাচল শুরু

প্রায় ২৪ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর চট্টগ্রামের সঙ্গে কক্সবাজার ও বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ শুরু হয়েছে। তবে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কে যানবাহন চলাচল এখনও পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি।

আজ বুধবার সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান হাইওয়ে পুলিশের চট্টগ্রাম অঞ্চলের পুলিশ সুপার পরিতোষ ঘোষ। তিনি বলেন, চট্টগ্রামের সঙ্গে কক্সবাজার ও বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ শুরু হয়েছে। তবে ওই রুটে এখন সব ধরনের যান চলাচল করতে পারছে না। এদিকে রাঙামাটি শহরের সড়কে মাটি ও পানি থাকায় কোনো গাড়ি রাঙামাটিতে প্রবেশ করতে পারছে না। চট্টগ্রাম শহর থেকে রাঙামাটি শহরের আগে ঘাগড়া পর্যন্ত যানবাহন চলাচল করছে।

Shah Amanat Bridge

শাহ আমানত সেতু। সড়ক পথে চট্টগ্রাম শহর থেকে বান্দরবান ও কক্সবাজার জেলায় যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ সেতু এটি। ফাইল ছবি

পরিতোষ ঘোষ বলেন, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চন্দনাইশ উপজেলার কসাইপাড়া থেকে দেওয়ানহাট পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার সড়ক পানিতে ডুবে ছিল। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে চন্দনাইশে জমে থাকা পানি সরে যাওয়ায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়ক যান চলাচল শুরু হয়েছে। চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কের রাউজান উপজেলার বিভিন্ন অংশ পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় ওই রুটে যান চলাচল বিঘ্নিত হয়েছিল। রাতে সেই পানি সরে গেছে। অন্যদিকে রাঙামাটিতে শহরের সড়কে মাটি ও পানি জমে থাকায় চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কে যান চলাচল এখনও স্বাভাবিক হয়নি।

এদিকে টানা বৃষ্টিতে মহাসড়কে পানি জমে যাওয়ায় বান্দরবানের সঙ্গে চট্টগ্রামের সড়ক যোগাযোগও প্রায় ২৪ ঘণ্টা বন্ধ ছিল। মহাসড়কের সাতকানিয়া উপজেলার কেরাণীহাটের পূর্ব পাশে নতুন ব্রিজ এলাকা তলিয়ে গিয়ে এই সমস্যার সৃষ্টি হয়।

সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ উল্লাহ বলেন, রাতে মহাসড়ক থেকে পানি সরে গেছে। সকাল থেকে বড় চাকার গাড়ি চলছে। বান্দরবানের সঙ্গে যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। তবে বান্দরবান শহরের সুয়াবিল এলাকায় এখনও সড়কে পানি জমে আছে। বড় গাড়ি চলতে পারলেও প্রাইভেট কার, অটোরিকশাসহ ছোট যানবাহনগুলো চলাচলে সমস্যা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ২ দিনের টানা বর্ষণে চট্টগ্রাম-বান্দরবান-রাঙামাটি-কক্সবাজার রুটে যান চলাচল কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল। এখন কিছু যান চলাচল করলেও যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়নি।

অর্থসূচক/দেবব্রত/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ