স্বস্তি ফেরেনি বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৪ তলায়
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

স্বস্তি ফেরেনি বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৪ তলায়

বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের ১৪ তলায় বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার প্রায় ৩ মাস পেরিয়ে গেছে। কিন্তু আজও স্বস্তি ফেরেনি এই বিভাগের কর্মকর্তাদের মাঝে। প্রচণ্ড গরম, দুর্গন্ধ আর অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যেই কাজ করছেন এই বিভাগের কর্মকর্তারা।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের ১৪ তলায় বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগের একাংশ এখনও ক্ষত-বিক্ষত অবস্থায় পড়ে আছে। বিভাগটির আসবাব, নথিপত্র, কম্পিউটার  এবং অন্যান্য সরঞ্জামাদি পোড়া অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এ বিভাগের একাংশে বিদ্যুৎ সংযোগ থাকলেও বাকি অংশে বিদুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে। প্রচণ্ড গরমের কারণে কোনো কোনো কর্মকর্তা ভবনের দেয়ালের কাচ খুলে দিয়েছেন। এর ফলে বাহির থেকে ময়লা-আবর্জনা ও দুষিত বায়ু ভবনে প্রবেশ করছে বলে জানান এই বিভাগের কর্মকর্তারা।

এখন স্বস্তি ফেরেনি বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৪ তলায়

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এই বিভাগের একাধিক কর্মকর্তা অর্থসূচককে বলেন, প্রচণ্ড গরম আর দুর্গন্ধের মধ্যেই আমাদের কাজ করতে হচ্ছে। এখানে কাজের কোনো পরিবেশই নেই। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার এতোদিন পেরিয়ে গেলেও আমাদের এই বিভাগের অবস্থার কোনো উন্নতি নেই। নোংরা আর অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যেই আমাদের নিয়মিত কাজগুলো আমরা করে যাচ্ছি। সার্কুলার জারিসহ অন্যান্য সকল কাজই আমরা করছি। কিন্তু, এভাবে আর কতোদিন কাজ করবো। অন্তত বিদুৎ সংযোগটা দিলে একটু স্বস্তিতে কাজ করতে পারতাম।

জানা যায়, বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগে ২৫ জন ব্যাংক কর্মকর্তা রয়েছেন এবং ৭ জন কর্মচারী রয়েছেন। অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যেই তারা নিয়মিত অফিসিয়াল কার্যক্রম করে যাচ্ছেন।

এখন স্বস্তি ফেরেনি বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৪ তলায়

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত এই বিভাগের সংস্কারের দায়িত্ব পালন করছে বাংলাদেশ ব্যাংকের কমন সার্ভিসেস ডিপার্টমেন্ট। জানতে চাইলে এই বিভাগের জিএম-২ (মহাব্যবস্থাপক) তোফাজ্জেল হোসেন অর্থসূচককে বলেন, আমরা ইতিমধ্যেই পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এবং ফায়ার সার্ভিস ক্লিয়ারেন্স পেয়ে গেছি। তারা আমাদের কাজ করতে বলেছেন। এছাড়া টেন্ডারও চলে গেছে। খুব শিগগির কাজ শুরু হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা অর্থসূচককে বলেন, সংস্কারের কাজ চলছে। খুব শিগগির এ সমস্যার সমাধান হবে। তবে এই বিভাগের অনেক কর্মকর্তাকে অন্যস্থানে অস্থায়ীভাবে কাজ করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের গত ২৩ মার্চ বৃহস্পতিবার রাজধানীর মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের ১৪ তলায় বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে গুরুত্বপূর্ণ নথিসহ কম্পিউটার ও অন্যান্য সরঞ্জাম পুড়ে  যায়। এ দুর্ঘটনায় ৮০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয় বলে বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়।

অর্থসূচক/মেহেদী/এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ