অনলাইন ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়া খালাস হবে না পণ্য
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

অনলাইন ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়া খালাস হবে না পণ্য

দেশে আমদানি-রফতানি ব্যবসা চালাতে হলে অনলাইনে নিবন্ধন করে ডিজিটাল ভ্যাট নাম্বার নিতে হবে। এই নাম্বার হবে ৯ ডিজিটের। এ নাম্বার ছাড়া আগামীতে আমদানি-রফতানি ব্যবসা পরিচালনা করা যাবে না। ডিজিটাল ভ্যাট নাম্বার ছাড়া পণ্য খালাস করতে পারবেন না কোনো আমদানিকারক। মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন ২০১২ বাস্তবায়ন শুরু হলেই এ সমস্যায় পড়বেন আমদানি-রফতানিকারকরা। আগামী ১ জুলাই আইনটি কার্যকর হবে।

আমদানি-রফতানি ব্যবসায় সম্ভাব্য জটিলতা এড়াতে বিদ্যমান ভ্যাটদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে চলতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে পুনরায় অনলাইনে ভ্যাট নিবন্ধন করতে হবে।

আলোচিত বিষয়ে গত ৬ জুন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এছাড়া সিঅ্যান্ডএফ (Clearing and Forwarding) প্রতিষ্ঠানগুলোকেও অনলাইনে নিবন্ধন করে ডিজিটাল ভ্যাট নাম্বার নিতে হবে। কোনো সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের ৯ ডিজিটের বিআইএন (VAT Identification Number-BIN)  না থাকলে তার লাইসেন্সের কোনো কার্যকারিতা থাকবে না। ফলে তিনি গ্রাহকদেরকে সিঅ্যান্ডএফ সেবা দিতে পারবেন না। সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টদেরকে আগামী ৩০ জুনের মধ্যে অনলাইনে পুনঃনিবন্ধন করতে হবে।

এ বিষয়ে এনবিআরের দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা অর্থসূচককে বলেন, নয় ডিজিটের নাম্বার না থাকলে ১ জুলাইয়েরে পর কোনো প্রতিষ্ঠান পণ্য আমদানি করার পর তা বন্দরে খালাস করতে পারবে না। এ জন্য ব্যবসায়ীদের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভ্যাট অনলাইনে পুনর্নিবন্ধন নিতে অনুরোধ করা হয়েছে। এতে তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম ব্যহত হতে পারে। তাই সময় থাকতেই তাদেরকে নিবন্ধনের কাজটি শেষ করার জন্য তাগিদ দিচ্ছি আমরা।

উল্লেখ, আগে ভ্যাটের নিবন্ধন দেওয়া হতো মাঠপর্যায় তথা সংশ্লিষ্ট সার্কেল অফিস থেকে। ওই নিবন্ধন নাম্বার ছিল এগারো ডিজিটে। অনলাইনে নিবন্ধনের ক্ষেত্রে বড় পরিবর্তন আনা হয়েছে। নতুন নিয়মে সার্কেল অফিসের পরিবর্তে কেন্দ্রীয়ভাবে এনবিআর থেকে নিবন্ধন নাম্বার দেওয়া হচ্ছে। আর নিবন্ধন নাম্বারও আকারে একটু ছোটো হয়ে নয় ডিজিটের হয়েছে।

এনবিআর কর্তৃপক্ষ বলছেন, নতুন পদ্ধতি ও আইনটি ভ্যাটদাতাবান্ধব। আগে একটি প্রতিষ্ঠানের একাধিক শাখা বা আউটলেট থাকলে প্রতিটির জন্য আলাদাভাবে নিবন্ধন করে নাম্বার নিতে হতো। আলাদাভাবে রিটার্ন দাখিল করতে হতো। কিন্তু এখন এমন প্রতিষ্ঠানকেও একটি নিবন্ধন নিলেই চলবে।

তাছাড়া নতুন আইনে ভ্যাট ফেরত পাওয়া (Refund) প্রক্রিয়াটিও সহজ করা হয়েছে।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ