ফ্লাইট প্রতি এজেন্সির ৪৫ হজযাত্রী বাধ্যতামূলক
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ফ্লাইট প্রতি এজেন্সির ৪৫ হজযাত্রী বাধ্যতামূলক

আসন্ন পবিত্র হজের প্রতিটি ফ্লাইটে এজেন্সি প্রতি হজযাত্রীর নিম্নসীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে সৌদি সরকার। চলতি বছর পবিত্র হজ পালনে জেদ্দা ও মদিনাগামী ফ্লাইটের প্রতিটিতে একই এজেন্সির কমপক্ষে ৪৫ জন হজযাত্রী পাঠাতে হবে।

Hajj Flight4

পবিত্র হজের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার সময় দোয়া পড়ছেন একদল হজযাত্রী। ফাইল ছবি

জেদ্দার বাংলাদেশ হজ অফিস থেকে পাঠানো এক চিঠির বরাত দিয়ে সম্প্রতি ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব (হজ-২) বেগম হাসিনা শিরিন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বিমানবন্দরে হজযাত্রীদের ভোগান্তি কমানোর লক্ষ্যে এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সৌদি আরব।

জেদ্দার বাংলাদেশ হজ অফিসের কাউন্সিলর (হজ) মুহাম্মদ মাকসুদুর রহমান ধর্ম মন্ত্রণালয়ে পাঠানো এক চিঠিতে বলেন, জেদ্দা ও মদিনা হজ টার্মিনাল থেকে ইমিগ্রেশন শেষে স্থানীয় ইউনাইটেড এজেন্টস অফিসের মাধ্যমে জেনারেল কার সিন্ডিকেট প্রদত্ত বাসে করে হজযাত্রীদের মক্কা ও মদিনায় পাঠানো হয়।

এই বছর জেদ্দা ও মদিনা বিমানবন্দর থেকে সরাসরি আবাসনের জন্য ভাড়া করা হোটেল/বাড়িতে নেওয়া হবে হজযাত্রীদের। বিমানবন্দর থেকে তাদের যাতায়াতরে জন্য বাস নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রতিটি বাসে সাধারণত ৪৫ থেকে ৪৮ জন হজযাত্রীর ধারণক্ষমতা থাকে। ফলে একটি ফ্লাইটে একই এজেন্সির কমপক্ষে ৪৫ জন হজযাত্রী পাঠানো হলে বাসটি তাড়াতাড়ি বিমানবন্দর ছেড়ে যেতে পারবে। এতে হজযাত্রীদের জেদ্দা হজ টার্মিনালে ভোগান্তি কমে যাবে।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, কোনো এজেন্সির হজযাত্রীর সংখ্যা ৪৫ জনের কম অথবা একটি ফ্লাইটে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র দলে হজযাত্রী পাঠালে ওই যাত্রীদের বিমানবন্দরে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাসের জন্য অপেক্ষা করতে হয়। এতে হজযাত্রীরা চরম ভোগান্তির শিকার হন। এই ভোগান্তি কমাতে একক এজেন্সির ন্যূনতম হজযাত্রীর সংখ্যা যেন ৪৫ জনের কম না হয় সেদিকে লক্ষ রাখতে নির্দেশনা দিয়েছে সৌদি সংস্থাগুলো।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ