পুষ্টিকর খাবার থাকুক সেহরীতে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

পুষ্টিকর খাবার থাকুক সেহরীতে

রমজান মাসে সাধারণত খাওয়ার ঝামেলা অনেক কম থাকে। সারাদিন রোজা রাখার পর ইফতারের নানান মুখরোচক খাবার খাওয়ার পর পরই শুরু হয় মাগরিব, এশা আর তারাবির নামাজ। মাঝখানে অনেকে রাতের খাবার খান, আবার অনেকে না খেয়ে একবারে সেহরীতে খান। কাজেই দীর্ঘ সময় না খেয়ে থেকে ইফতার, আবার প্রায় ৭ ঘন্টা পর সেহরী। তাই সেহরীতে যেন অত্যন্ত পুষ্টিকর খাবার থাকে সেদিকে আমাদের খেয়াল রাখা জরুরী। তাই আজ সেহরীর জন্য থাকছে ২ টি পুষ্টিকর খাবারের রেসিপি।

সবজি ডাল

ডাল সবজি
উপকরণ: পটল ছোট টুকরা করা ১ কাপ, কাঁকরোল ছোট টুকরা করা ১ কাপ, আলু ছোট টুকরা করা ১ কাপ, মসুর ডাল আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি ১ চা চামচ, রসুন কুচি ১ চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চামচ, কাঁচা মরিচ ৪-৫টি, তেল ২ টেবিল চামচ।
প্রস্তুত প্রণালী: তেল ও পেঁয়াজ ছাড়া সব উপকরণ দিয়ে সবজি ও ডাল সিদ্ধ করে নিন। প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা ভেজে নিন। সবজি দিন। সেদ্ধ হলে নেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

আলু মুরগির ঝোল

আলু মুরগির ঝোল

উপকরণ: আলু ছোট টুকরা করা ২ কাপ, মুরগি ছোট টুকরা করা ১টি, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, এলাচ ২টি, দারুচিনি ২ টুকরা, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো, জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি: প্যানে তেল গরম করুন। তাতে পেঁয়াজ কুচি, এলাচ ও দারুচিনি দিয়ে হালকা ভেজে নিয়ে সামান্য পানি দিয়ে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে মুরগি ও আলু দিয়ে কষিয়ে পরিমাণমতো পানি দিয়ে ঢেকে রান্না করুন। মাংস ও আলু সিদ্ধ হয়ে গেলে মাংস ঝোল থাকতে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

তবে ব্যস্ত জীবনে সব খাবার তো আর সেহরীতে রান্না করা সম্ভব হয় না। সেক্ষেত্রে চাইলে অনেকেই ভারী খাবার গুলো রাতে রান্না করে রাখতে পারেন। যাতে করে সেহরীতে খাবারগুলো গরম করে খাওয়া যায়।

অর্থসূচক/টি এম/কে এম

এই বিভাগের আরো সংবাদ