কূটনৈতিক ইস্যুতে বিধ্বস্ত কাতারের পুঁজিবাজার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

কূটনৈতিক ইস্যুতে বিধ্বস্ত কাতারের পুঁজিবাজার

জঙ্গি ইস্যুতে মধ্যপ্রাচ্যের ৫ দেশ কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করায় দেশটির পুঁজিবাজার একদিনেই নেতিয়ে পড়েছে। আজ সোমবার কাতারের স্টক ইনডেক্স লেনদেনের প্রথম ঘণ্টায় ৭.৬ শতাংশীয় পয়েন্ট হারায়।

কাতারের বিরুদ্ধে ওইসব দেশের অভিযোগ দেশটি সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন দিচ্ছে।

ছবি সংগৃহীত

এ ইস্যুতে আজ সোমবার প্রথম সৌদি আরব, মিশর, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা দেয়। পরে এ ৪ দেশের সঙ্গে যুক্ত হয় ইয়েমেনও।

এতে করে কাতারের অর্থনীতির পতন নিয়ে শঙ্কায় পড়ে দেশি-বিদেশি ব্যবসায়ীরা। এমনকি আগামী ২০২২ সালে দেশটিতে আয়োজিত ফুটবল বিশ্বকাপও কিভাবে সম্পন্ন তা নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

ইকোনমিক টাইমসের খবরে বলা হয়, এদিন লেনদেনের প্রথম ঘণ্টায় তালিকাভুক্ত অধিকাংশ ব্লু-চিপ কোম্পানির শেয়ার বেশি দর হারায়। ভোডাফোন কাতারের শেয়ারদর ১০ শতাংশ পতন হয়।

তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর শেয়ারদরও এদিন বড় ধরনের পতনে লেনদেন করে। দেশটির সবচেয়ে বড় ব্যাংক কাতার ন্যাশনাল ব্যাংকের শেয়ার এদিন ৫.৭ শতাংশ দর পতন হয়। দোহা ব্যাংকের শেয়ারও ছিল ঋণাত্মক।

কাতার স্টকের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, আজ সকাল থেকে দেশটির পুঁজিবাজারে অন্ধকার নেমে আসে। এদিন বাজারের সব কটি সূচক ৬ থেকে ১০ শতাংশ পর্যন্ত নিম্নমুখী ছিল।

রয়টার্সের সংবাদদাতা জেমি ম্যাকগিভার জানিয়েছেন, ২০০৯ সালের ডিসেম্বরের পর কাতারের পুঁজিবাজারে এটিই সবচেয়ে বড় ধস।

এদিকে ৫ দেশ সম্পর্ক ছিন্ন করার পর তাদের পরিচালিত বিমান পথও রুদ্ধ করে দিচ্ছে তারা। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ইতিহাদ এয়ারলাইন্স ও এমিরেটাস কাতারে তাদের ফ্লাইট স্থগিত করে দিয়েছে।

বিবিসি বলছে, মধ্যপ্রাচ্যের হঠাৎ এই অস্থিরতায় শুধু কাতারের পুঁজিবাজারে প্রভাব ফেলেনি। এটি খাদ্যখাত, জনশক্তি খাত ও নির্মাণ খাতেও নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। বিশেষ করে কাতারে অন্যান্য দেশ থেকে যাওয়া প্রবাসীরা হোঁচট খাবে।

শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ