‘বাজেট পুঁজিবাজারবান্ধব নয়, আওয়ামী লীগবান্ধব’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘বাজেট পুঁজিবাজারবান্ধব নয়, আওয়ামী লীগবান্ধব’

২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটকে আওয়ামী বান্ধব বাজেট বলে উল্লেখ করেছেন খুলনার পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীরা। এ বাজেট পুঁজিবাজারবান্ধব নয় বলেও উল্লেখ করেছেন তারা।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বাজেট ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি ও বিনিয়োগকারী সাহারুজ্জামান মোর্ত্তুজা অর্থসূচককে বলেন, এ বাজেট পুঁজিবাজারবান্ধব নয়। জনবান্ধব ও ব্যবসাবান্ধব নয়। সরকারের নিজেদের স্বার্থে উচ্চাভিলাষী ও কল্পনাবিলাসী এ বাজেট পেশ করা হয়েছে। এতে সাধারণ মানুষের কোনো কল্যাণ না হলেও আওয়ামী লীগ নেতাদের উপকার হবে।

khulna-brokarhouse

বিনিয়োগকারীতে পরিপূর্ণ খুলনার একটি ব্রোকারহাউজ।

ব্যবসায়ী এ নেতার মতো খুলনার অনেক সাধারণ বিনিয়োগকারীরাও নতুন অর্থবছরের বাজেট নিয়ে হতাশ। তারা বলছেন, এ বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য নেই কোনো সুখবর। তারা চূড়ান্ত বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য বিশেষ প্রণোদনা রাখার দাবি জানান।

মো. রুবেল নামের এক বিনিয়োগকারী বলেন, আশায় ছিলাম বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য কোনো একটা চমক থাকবে। কিন্তু ঘোষিত বাজেটে হতাশা ছাড়া আর কোনো চমক নেই। আমরা যে তিমিরে ছিলাম সেখানেই রয়ে গেলাম।

আরেক বিনিয়োগকারী জিএম রাসেল ইসলাম বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য কোনো প্রণোদনা রাখা হয়নি। এতে বিনিয়োগকারীরা হতাশ হয়েছেন।

তবে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের জাতীয় বাজেটকে ব্যবসাবান্ধব বলে অভিনন্দন জানিয়েছেন খুলনা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি কাজি আমিনুল হক।

তিনি বলেন, ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরের জন্য ঘোষিত জাতীয় বাজেট জনহিতকর, বাস্তবসম্মত, উন্নয়নমুখী, গণমুখী ও ব্যবসাবান্ধব।

প্রস্তাবিত এ বাজেটে উন্নয়ন খাত, বিদ্যুৎ ও জ্বালানী খাত, কৃষি খাত শিক্ষা ও প্রযুক্তিখাত, নিরাপত্তা খাতে অধিক বরাদ্দ, নারী ও বয়স্ক, মুক্তিযোদ্ধা এবং প্রতিবন্ধীদের করমুক্ত আয়কর সীমা বৃদ্ধি করায় এবং মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বছরে দুইটি উৎসব ভাতা চালু করাসহ বিভিন্ন প্রশংসনীয় উদ্যোগ রয়েছে।

এ বাজেট সাধারণ মানুষের জীবন যাত্রা সহজীকরণ, দারিদ্র বিমোচন, ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পের উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এছাড়া ব্যবসায়ীদের জন্য ভ্যাটের পরিমাণ ১২ শতাংশ পর্যন্ত নির্ধারণ এবং ব্যাংকে যে কোনো আমানতের (সঞ্চয়ের) ক্ষেত্রে আবগরি শুল্ক প্রত্যাহার করার ব্যাপারে বিশেষ বিবেচনার জন্য খুলনা চেম্বারের পরিচালনা পরিষদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রীর কাছে বিশেষভাবে অনুরোধ জানান।

অর্থসূচক/এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ