বাজেট ঘাটতি ১ লাখ ১২ হাজার কোটি টাকা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বাজেট ঘাটতি ১ লাখ ১২ হাজার কোটি টাকা

২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটের আকার যেমন ইতিহাসের সর্বোচ্চ বাজেট তেমনি এই বাজেটে ঘাটতিও হচ্ছে স্মরণকালের সর্বোচ্চ।

৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেটে প্রথমবারের মতো ঘাটতি ১ লাখ ১২ হাজার কোটি টাকা ছাড়াবে। আর ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৩ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকার বাজেটে ঘাটতি ধরা হয়েছিল ৯৭ হাজার ৮৫৩ কোটি টাকা।

Budget 2017-18

২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থায়ন উৎসের ছক।

হিসেব করে দেখা গেছে, প্রস্তাবিত বাজেটের আকার আগের

বছরের তুলনায় ১৭ শতাংশ বেশি। তবে বিশাল এ বাজেটে ঘাটতি পরিমাণ জিডিপির (মোট দেশজ উৎপাদন) ৫ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ।

দেখা গেছে, গত ৫ বছরের মধ্যে এবারই প্রথম বাজেট ঘাটতি জিডিপির পাঁচ শতাংশ অতিক্রম করছে। ২০১৫-১৬ ও ২০১৪-১৫ অর্থবছরে পাঁচ শতাংশ করে ঘাটতি ছিল বাজেটে। আর ২০১৩-১৪ ও ২০১২-১৩ অর্থবছরে এ ঘাটতির পরিমাণ ছিল যথাক্রমে ৪ দশমিক ৬ শতাংশ ও ৪ দশমিক ৮ শতাংশ।

বাজেট ঘাটতি মেটাতে সরকার  সাধারণত দেশ-বিদেশ থেকে ঋণ নেয়, যার মধ্যে বেশি ঋণ নিয়ে থাকে দেশের ব্যাংক ব্যবস্থা থেকেই। ব্যাংক থেকে স্বল্প, দীর্ঘ—দুইধরনের ঋণ নিলেও বেশি নেয় দীর্ঘমেয়াদি ঋণ। ঘাটতি মেটাতে এ ছাড়া সঞ্চয়পত্র বিক্রি করেও ভালো একটা টাকা সংগ্রহ করে সরকার।

আগের অর্থবছরের ঘাটতি মেটাতে ঘাটতি অর্থায়নে বৈদেশিক উৎস হতে ৩৬ হাজার ৩০৫ কোটি টাকা (জিডিপি’র ১.৯ শতাংশ) এবং অভ্যন্তরীণ উৎস হতে আসবে ৬১ হাজার ৫৪৮ কোটি টাকা (জিডিপি’র ৩.১ শতাংশ)। অভ্যন্তরীণ উৎসের মধ্যে ব্যাংক ব্যবস্থা হতে ৩৮ হাজার ৯৩৮ কোটি টাকা (জিডিপি’র ২.০ শতাংশ) এবং সঞ্চয়পত্র ও অন্যান্য ব্যাংক-বহির্ভূত উৎস হতে ২২ হাজার ৬১০কোটি টাকা (জিডিপি’র ১.১ শতাংশ) রাজস্বের লক্ষ্যধরা হয়।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ