ব্যবসায়ীদের টার্নওভার কর বাড়ল
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ব্যবসায়ীদের টার্নওভার কর বাড়ল

নতুন মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইনে ব্যবসায়িদের দাবি মেনে নিয়ে মূসক নিবন্ধনসীমা ৮০ লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা করার ঘোষণা দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে তিনি এ ঘোষণা দেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, কোন ব্যবসায়ির বার্ষিক ৩৬ লাখ বিক্রি হলে কোন কর দিতে হবে না। এর আগে নতুন আইনে ৩০ লাখ টাকা টার্নওভার তালিকাভূক্তির সীমা নির্ধারণ করা হয়। ব্যবসায়িদের দাবির প্রেক্ষিতে এটা ৩৬ লাখ টাকা করা হয়েছে। মাসে ৩ লাখ ও বছরে ৩৬ লাখ টাকা বিক্রি হলে ওই ব্যবসায়িকে আর ভ্যাট নিবন্ধিত বা তালিকাভূক্ত হওয়া বা তার ক্ষেত্রে কোন কর প্রযোজ্য হবে না।

তিনি বলেন, মূসক নিবন্ধন সীমা ৮০ লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা করা হয়েছে। কোন ব্যবসায়ীর বার্ষিক বিক্রি ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা হলে তাকে ৪% হারে টার্নওভার কর দিতে হবে। নতুন ভ্যাট আইনে যেখানে ৮০ লাখ টাকা হলে ৩% নেওয়ার কথা ছিল। নিবন্ধন সীমা বৃদ্ধির সাথে সাথে টার্নওভার কর ১% বৃদ্ধি করা হয়েছে। ১ কোটি ৫০ লাখ টাকার বেশি বিক্রি হলেই ভ্যাট নিবন্ধন নিতে হবে এবং ১৫% হারে ভ্যাট দিতে হবে। যদি ব্যবসায়ী সঠিকভাবে হিসাব রাখেন তাহলে সকল উপকরণ কর রেয়াত পাবেন। ফলে তার নীট কর কম হবে।

রেয়াতের শর্ত সহজ করা হয়েছে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, নতুন আইন অনুযায়ী কোন ব্যবসায়ী স্থানীয় পর্যায়ে বিক্রি করে এবং তার অনুকূলে মূসক চালান থাকে, তবে তিনি রেয়াত গ্রহণ করতে পারবেন। উপকরণ কর পরিশোধ করার দরকার নেই। অর্থাৎ ব্যবসায়ী বাকিতে ক্রয় করলে, ভ্যাটের অর্থ পরিশোধ না করা সত্ত্বেও প্রযোজ্য ভ্যাটের সমপরিমাণ অর্থ রেয়াত গ্রহণ করতে পারবেন।

আমদানির ক্ষেত্রে দেশে ব্যবহারের জন্য কাস্টমস সনদের বিধান বাতিল করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ব্যবসায়ী বিল অব এন্ট্রি থাকলেই আমদানিতে পরিশোধিত ভ্যাট রেয়াত ও অগ্রিম কর সমন্বয়ের মাধ্যমে কর রেয়াত পাবেন।

রহমত/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ