‘বিনিয়োগ সেবায় ৬ মাসের মধ্যে ওয়ান স্টপ সার্ভিস’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘বিনিয়োগ সেবায় ৬ মাসের মধ্যে ওয়ান স্টপ সার্ভিস’

স্বল্পতম সময়ে বিনিয়োগকারীদের দ্রুত সেবা দিতে আগামী ৬ মাসের মধ্যে পুরোদমে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ চালু করবে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)। এতে এক দরজায় বিনিয়োগকারীদের জন্য মিলবে সব ধরনের সেবা। বিনিয়োগ পরিবেশেরও অভাবনীয় উন্নতি ঘটবে।

বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে ‘ডুয়িং বিজনেস রিফর্ম আপডেট’ বিষয়ক এক সেমিনারে এ কথা জানান বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী মো. আমিনুল ইসলাম।

বক্তব্য রাখছেন বিডা চেয়ারম্যান। ছবি মহুবার রহমান

সেমিনারে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বাস্তবায়নের মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবীর, আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব শহিদুল হক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

আমিনুল ইসলাম বলেন,ওয়ান স্টপ সার্ভিস আইন-২০১৭ ভেটিংয়ের জন্য বর্তমানে আইন মন্ত্রণালয়ে রয়েছে। শিগগিরই এটি ভেটিংশেষে জাতীয় সংসদে পাস হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য ভিসা সহজীকরণ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন,আমরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য ৬ মাসের ভিসা দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছি। এতে বিদেশী ব্যবসায়ীরা অনেক লাভবান হবেন।

বিনিয়োগ পরিস্থিতি উন্নতির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে আবুল কালাম আজাদ বলেন, বিদ্যুৎ সংযোগ ও সরবরাহ আগের তুলনায় অনেক সহজ হয়েছে। যেহেতু এলএনজি চালু হচ্ছে, সুতরাং গ্যাস সংযোগও সহজ হয়ে যাবে। তিনি ডয়িং বিজনেস পরিস্থিতির উন্নয়নে সব মন্ত্রণালয়ের আইন সেলকে অধিকতর সক্রিয় করার পরামর্শ দেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবীর বলেন, বিদেশী বিনিয়োগ সম্প্রসারণের জন্য কেন্দ্রিয় ব্যাংক বৈদেশিক মুদ্রানীতি উদারীকরণ করেছে।বিদেশীরা বিনিয়োগকারীরা সহজে তাদের বিনিয়োগের লভ্যাংশ দেশে নিয়ে যেতে পারেন। বিদেশীরা কিভাবে জামানত ছাড়া ঋণ পেতে পারেন-এখন আমরা সেটি নিয়ে কাজ করছি।

লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব শহিদুল হক বলেন,আইনী সংস্কারের ক্ষেত্রে আমাদের যথেষ্ট অগ্রগতি হয়েছে।ওয়ান স্টপ সার্ভিস আইন-২০১৭, এখন ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে রয়েছে। এটি হয়ে গেলে ব্যবসায়ীদের আর দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হবে না।

তিনি জানান, জমি রেজিস্ট্রেশনের জন্য এমন একটি মডেল চালু করা হচ্ছে যাতে-জমি রেজিস্ট্রেশনের সঙ্গে সঙ্গে দলিলও পাওয়া যায়।

এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ