‘আল্লাহ মেহেরবান' নিয়ে বিতর্কে নুসরাত ফারিয়া
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘আল্লাহ মেহেরবান’ নিয়ে বিতর্কে নুসরাত ফারিয়া

আগামীকাল রোববার যখন সিয়াম সাধনার মাস শুরু হচ্ছে, ঠিক সেই মুহূর্তে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনার ‘বস টু’ র ‘আল্লাহ মেহেরবান’ শিরোনামের একটি আইটেম গান মুক্তি পেয়েছে। তবে মুক্তির পরই বিতর্ক তৈরি হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তো এ নিয়ে চলছে সমালোচনার ঝড়।

তোপের মুখে পড়েছেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া। গানের কথার সঙ্গে ফারিয়ার খোলামেলা পোশাক আর আবেদময়ী নাচ-ভঙ্গিমার কারণে ফেসবুকে সমালোচনায় বিভোর ভক্ত ও বিশ্লেষকরা।

আসন্ন ঈদুল ফিতরে মুক্তির কথা রয়েছে কলকাতার হিট ছবি বস’এর সিক্যুয়েল ‘বস-২’। সিনেমাটিতে নুসরাত ফারিয়া বিপরীতে অভিনয় করছেন জিৎ।

গতকাল শুক্রবার ‘আল্লাহ মেহেরবান’ শিরোনামের ওই গানের ভিডিওটি ইউটিউবে মুক্তি দেওয়া হয়। যেখানে গানের শিরোনামের সঙ্গে নুসরাত ফারিয়ার বেশ খোলামেলা ছবি তুলে ধরা হয়। এরপর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিশেষত ফেসবুকে বিষয়টি নিয়ে নানা প্রশ্ন আর সমালোচনা শুরু হয়। শুধু তাই নয়, ইউটিউবেও ওই ভিডিওটিতে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন জনকে নানা রকমের গালিগালাজ করতে।

মাহফুজা আনজুম মৌ নামের একজন ফেসবুকে লিখেছেন, এই দেখে হেফাযতিদের কিছু হয় না! নাকি আল্লাহ মেহেরবান গানের সাথে এই মহিলার অর্ধ-নগ্ন শরীরের বেহুদা নেত্ত্য হুরদের আশীর্বাদ কেই স্মরণ করায়?? আমারে কেউ বুঝাবা আল্লাহ্‌ মেহেরবান গানের সাথে এরাম ড্রেস আর নাচের মানে কি????

কেউ বলছেন, গানের শিরোনাম, কথা অথবা ভাবধারার সঙ্গে ফারিয়ার খোলামেলা উপস্থিতি দারুণ সাংঘর্ষিক।

যেখানে জিৎ-এর কালো কাবলি-পাগড়ি-ড্রেসআপ এবং উপস্থিতি একেবারেই স্বাভাবিক।সেখানে বাংলাদেশি নায়িকা নুসরাত ফারিয়ার এমন খোলামেলা উপস্থিতি কতটা প্রাসঙ্গিক আর কতটা উদ্দেশ্যমূলক- সেটি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ।   প্রাঞ্জলের কথায়, জিৎ গাঙ্গুলীর সুর-সংগীতে, নাকাশ ও জনিতা গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন। কোরিওগ্রাফি করেছেন এই ছবির অন্যতম নির্মাতা বাবা যাদব।

ইউটিউবে সৌভিক অর্নব নামে একজন লেখেন,  আমি একজন হিন্দু হয়ে বলছি এইভাবে সৃষ্টিকর্তার নাম নিয়ে এরকম অশ্লিল গান বানানো উচিত হয়নি। কমন সেন্স বলে একটা ব্যাপার থাকা উচিত পরিচালকদের। আর গান বানানো হয়েছে সেটা সমস্যা না সমস্যা হল গানের প্রেক্ষাপট আর পোষাক পরিচ্ছদ সামঞ্জস্যহীন। কোনটার সাথে কোনটার মিল নেই।

এদিকে, এ বিষয়ে আজ এক সংবাদ মাধ্যমকে ফারিয়া বলেন, ‘আমরা যখন কোনো সিনেমায় কাজ করি, তখন শুধুমাত্র অভিনয়শিল্পী হিসেবেই কাজ করি। একজন অভিনয়শিল্পীকে বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে অভিনয় করতে হয়। অনেক কিছু উপস্থাপন করতে হয়। এই গানেও গল্পের খাতিরে পরিচালকের নির্দেশে এসব আমাকে করতে হয়েছে।’

‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানের ইউটিউব ও ফেসবুকে মন্তব্যকারীদের অনেকে নুসরাত ফারিয়ার উদ্দেশে গালিও ছুড়ছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি জানি অনেকে আমাকে গালি দিচ্ছেন। আমার মনে হয় সবার এতটুকু বিবেকবোধ ও বিবেচনা থাকা উচিত যে এসব কখনোই শিল্পীর সিদ্ধান্তে হয় না। শিল্পী তাঁর নিজের পছন্দমতো গানের সঙ্গে পোশাক পরে নাচ শুরু করে দিতে পারে না। এটা কিন্তু পুরো টিমের সিদ্ধান্ত।’

গানটা বিতর্ক ছড়াচ্ছে মনে করলেও এই গানের মাধ্যমে কারও কোনো ক্ষতি হচ্ছে বলে মনে করছেন না নুসরাত ফারিয়া।

এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ