স্নাতক সমাবর্তনে নিষিদ্ধ অন্তঃসত্ত্বা তরুণী
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

স্নাতক সমাবর্তনে নিষিদ্ধ অন্তঃসত্ত্বা তরুণী

অন্তঃসত্ত্বা মার্কিন তরুণীকে স্নাতক সমাবর্তনে নিষিদ্ধ করেছে তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মেরিল্যান্ডের ক্রিস্টিয়ান স্কুল। আগামী ২ জুন স্নাতক সমাবর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে যাচ্ছে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ক্রিস্টিয়ান স্কুলের স্নাতক সমাবর্তনে নিষিদ্ধ হওয়া তরুণীর নাম ম্যাডি রাঙ্কলেস; বয়স ১৮ বছর।

Maddi Runkles

মা, বাবা, ভাইয়ের সঙ্গে ম্যাডি রাঙ্কলেস।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ক্রিস্টিয়ান স্কুল মেরিল্যান্ডের অখ্যাত একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ওই প্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতক করেছেন ম্যাডি রাঙ্কলেস। আগামী ২ জুন ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্নাতক সমাবর্তনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে সম্প্রতি অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় ওই অনুষ্ঠানে ম্যাডি রাঙ্কলেসের উপস্থিতি নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হ্যাগার্সটাউনের হ্যারিটেজ একাডেমি প্রশাসনের সভায় ম্যাডি রাঙ্কলেসকে নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত হয়েছে। ব্যভিচারের জন্য দায়ী করে তার উপস্থিতিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

ক্রিস্টিয়ান স্কুলের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, নিয়মভঙ্গ করে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে ম্যাডি রাঙ্কলেস। এর মাধ্যমেই ব্যভিচার করেছে সে।

অন্তঃসত্ত্বার কারণ দেখিয়ে সমাবর্তনে নিষেধাজ্ঞা জারির ঘটনা জানার পর এই প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনার ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ এতে সাড়া দিয়েছেন।

Maddi Runkles2

মার্কিন তরুণী ম্যাডি রাঙ্কলেস।

উইনি নিটার নামে একজন টুইট করেছেন, ঈসার দেখানো ভালোবাসা এবং অনুগ্রহের প্রতি সম্মান দেখানোর সুযোগ ছিল হেরিট্যাজ একাডেমির। কিন্তু তার পরিবর্তে যা দেখিয়েছে, তার সত্যিই লজ্জার।

প্রাউড ক্রিস্টান নামের এক আইডি থেকে টুইট করা হয়েছে, পবিত্র বাইবেলে বলা হয়েছে, সবকিছুই ঈশ্বরের গৌরবের তুলনায় ক্ষণস্থায়ী। কিন্তু বাস্তবে কি ঘটছে এবং করুণা?

একদিকে ম্যাডি রাঙ্কলেসকে সমর্থন দিয়ে টুইটারে একের পর এক বার্তা আসছে। ওই বার্তাগুলোতে ক্রিস্টিয়ান স্কুল এবং হ্যারিট্যাজ একাডেমির এমন কাজের জন্য সমালোচনাও করা হচ্ছে।

অন্যদিকে সন্তানকে সমর্থন দিতে সমাবর্তনের দিনেই বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন ম্যাডি রাঙ্কলেসের মা-বাবা। সে বিষয়েও টুইট করা হচ্ছে।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ