মুসলিম দেশের নাগরিকদের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আবারও বাধার মুখে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

মুসলিম দেশের নাগরিকদের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আবারও বাধার মুখে

ছয়টি মুসলিম-প্রধান দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জারি করা সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আবারও আদালতের বাধার মুখে পড়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের ওই আদেশ পুনর্বহাল করার আবেদন গতকাল বৃহস্পতিবার নাকচ করে দিয়েছে ভার্জিনিয়ার একটি ফেডারেল আপিল আদালত।

আজ শুক্রবার বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের আদেশ পুনর্বহাল করার আবেদন নাকচ করে দেওয়া হয়ছে।

trump 1

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

নির্বাহী আদেশের পক্ষে ট্রাম্প প্রশাসনের দাবি, জাতীয় নিরাপত্তা প্রশ্নে প্রেসিডেন্টের নিরঙ্কুশ ক্ষমতা রয়েছে।

তবে আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা আদেশ মুসলিমদের প্রতি বৈষম্যমূলক। জাতীয় নিরাপত্তার ইস্যুতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ট্রাম্প প্রশাসন- এটি অত্যন্ত ধোঁয়াটে। তাই এমন আদেশ একটি ধর্মের নাগরিকদের প্রতি বিদ্বেষ স্পষ্ট।

বিচারকদের মতামত ব্যাখ্যা করে চতুর্থ সার্কিট আপিল আদালতের বিচারক রজার গ্রেগরি বলেন, জাতীয় নিরাপত্তার খাতিরে বিদেশি নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে আগমন অস্বীকার করার ক্ষমতা প্রেসিডেন্টের আছে। কিন্তু কংগ্রেস প্রদত্ত এই ক্ষমতা চূড়ান্ত বা নিরঙ্কুশ নয়। প্রেসিডেন্ট চাইলেই সবকিছু করতে পারেন না। তার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা যাবে না- তাও গ্রহণযোগ্য নয়। প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্তের ফলে অপূরণীয় ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার আশঙ্কা থাকলে- অবশ্যই তার বিরোধিতা করা যাবে।

এর আগে ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশের বাস্তবায়ন স্থগিত ঘোষণা করেছিল মেরিল্যান্ডের একটি ফেডারেল আদালত। এই রায়ের বিরুদ্ধে ভার্জিনিয়ার আপিল আদালতের হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করে ট্রাম্প প্রশাসন। গতকালের রায়ের ফলে মেরিল্যান্ডের আদালতের সিদ্ধান্তই অপরিবর্তিত রইল।

ট্রাম্পের আদেশের বিরোধী এবং সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়নের পক্ষের আইনজীবী ওমর জাদওয়াত এক বিবৃতিতে বলেন, আদালতের এই রায়ের ফলে মার্কিন শাসনতন্ত্রেরই জয় হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শপথ গ্রহণের পর প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে ৭টি মুসলিম দেশের নাগরিকদের ও ও সিরিয়ার উদ্বাস্তুদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন ট্রাম্প। আদালতের বাধার মুখে আদেশটি পরিবর্তন করে নতুন আদেশ জারি করেন। সে আদেশও আদালতের বিরোধিতা অতিক্রম করতে পারেনি।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ