২৯ মে স্বর্ণ ফেরত পাবেন আপন জুয়েলার্সের ১৮২ গ্রাহক
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

২৯ মে স্বর্ণ ফেরত পাবেন আপন জুয়েলার্সের ১৮২ গ্রাহক

শুল্ক ফাঁকি ও চোরাচালানের অভিযোগে আপন জুয়েলার্সের সিলগালা করা শো-রুমে আমানত হিসেবে থাকা স্বর্ণ আগামী ২৯ মে ফেরত দেওয়া হবে। আপন জুয়েলার্সের দেওয়া তালিকা অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে ১৮২ জন গ্রাহক আগামী সোমবার সকাল ১০টায় ওই ৫ শো-রুম থেকে তাদের স্বর্ণালঙ্কার ফেরত পাবেন।

আপন জুয়েলার্সের সিলগালা করা শো-রুমগুলো থেকে গ্রাহকদের স্বর্ণ ফেরত দেওয়ার সময় শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন। আমানত রাখা স্বর্ণালঙ্কার ফেরত পেতে কাগজপত্রাদি, রশিদ, জাতীয় পরিচয়পত্র/পাসপোর্ট সঙ্গে নিতে হবে গ্রাহকদের।

Apon Jewellers

আপন জুয়েলার্সের সিলগালা হওয়া ৫ শাখা থেকে গ্রাহকদের ফেরতযোগ্য স্বর্ণের তালিকা।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান জানান, গুলশান এভিনিউ, উত্তরা, সীমান্ত স্কয়ার, গুলশান-১ ডিসিসি মার্কেট ও মৌছাক মার্কেটে থাকা আপন জুয়েলার্সের বিক্রয় কেন্দ্রগুলোতে অভিযান চালিয়ে ১৩ মণ স্বর্ণ জব্দ করা হয়েছিল। এর মধ্যে গ্রাহকদের জমা রাখা সাড়ে ৩ কেজি স্বর্ণের কাগজপত্র উপস্থাপন করেছে আপন জুয়েলার্স কর্তৃপক্ষ।

তিনি জানান, গ্রাহকের নাম, যোগাযোগের ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বারসহ ১৮২ জন গ্রাহকের তালিকা জমা দিয়েছে শো-রুম কর্তৃপক্ষ। আগামী সোমবার সেগুলো ফেরত নিতে পারবেন গ্রাহকরা। ওই দিন সকাল ১০টায় প্রমাণাদি নিয়ে নির্দিষ্ট শো-রুমে হাজির হতে হবে গ্রাহকদের। ন্যায় বিচারের স্বার্থে এসব স্বর্ণালঙ্কার ফেরত দিচ্ছে শুল্ক গোয়েন্দা।

ড. মইনুল খান জানান, শুল্ক ফাঁকি ও অবৈধ স্বর্ণের ব্যাখ্যার জন্য আবারও শুনানিতে অংশ নিতে আগামী ৩০ মে সকাল ১১টায় আপন জুয়েলার্সের তিন মালিককে তলব করা হয়েছে।

১৭ মে আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ, গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদ জিজ্ঞাসাবাদে অংশ নিয়ে শো-রুম থেকে কাগজ সংগ্রহের অনুমতি চেয়েছিলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৮ মে শো-রুম খুলে কাগজপত্র নেওয়া সুযোগ দেওয়া হলেও তা নেয়নি কর্তৃপক্ষ। গত ২৩ মে তলবেও হাজির হননি তারা। ন্যায় বিচারের স্বার্থে আগার্মী ৩০ মে আবারও শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, চোরাচালান ও শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে গত ১৪ ও ১৫ মে আপন জুয়েলার্সের ৫টি শো-রুমে অভিযান চালিয়ে সাড়ে ১৩ মণ স্বর্ণালঙ্কার ও ৪২৭ গ্রাম হীরার অলঙ্কার উদ্ধার করা হয়। ঢাকায় আপন জুয়েলার্সের আরও ৩টি শো-রুম রয়েছে। তবে সেগুলোর বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট অনিয়ম অভিযোগ না থাকায় ওই বিক্রয় কেন্দ্রগুলোতে অভিযান চালানো হয়নি বলে জানিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

অর্থসূচক/রহমত/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ