জেএমবি নেতা সাইদুর রহমানের সাড়ে ৭ বছর কারাদণ্ড
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

জেএমবি নেতা সাইদুর রহমানের সাড়ে ৭ বছর কারাদণ্ড

নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সাবেক প্রধান মাওলানা সাইদুর রহমানকে সাড়ে ৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। সন্ত্রাসবিরোধী আইনে রাজধানীর কদমতলী থানায় করা মামলায় তার বিরুদ্ধে দুইটি অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

Saidur Rahman

জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সাবেক প্রধান মাওলানা সাইদুর রহমান।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ৩টার দিকে এই মামলার রায় ঘোষণা করেন ঢাকার বিশেষ জজ-৬ এর বিচারক ইমরুল কায়েস। মামলার শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মনজুর মাওলা চৌধুরী।

তিনি জানান, একই মামলায় সাইদুর রহমানের দুই সহযোগী আবদুল্লাহেল কাফী ও আয়েশা আক্তারের প্রত্যেককে সাড়ে ৭ বছর করে কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। তারা দুইজনই পলাতক রয়েছে।

মনজুর মাওলা চৌধুরী বলেন, সন্ত্রাসবিরোধী আইনে দায়ের করা মামলায় একটি ধারায় সাইদুর রহমান, আবদুল্লাহেল কাফী ও আয়েশা আক্তারকে ৭ বছরে করে কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।

একই মামলার আরেকটি ধারায় ৩ জনের প্রত্যেককেই ৬ মাস কারাদণ্ড এবং ৫০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে তাদের।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালের ২৫ মে কদমতলী থানার দনিয়া এলাকার একটি বাসা থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি বই ও প্রচারপত্রসহ সাইদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর জেএমবির সাবেক প্রধান ও তার সংগঠনের তিন সক্রিয় সদস্যের বিরুদ্ধে কদমতলী থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে একটি মামলা করা হয়। ২০১৬ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি মাওলানা সাইদুরসহ তিন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

গত ১৮ মে মামলার যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে রায় ঘোষণার জন্য ২৫ মে দিন ধার্য করেন ঢাকার বিশেষ জজ-৬ এর বিচারক ইমরুল কায়েস।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ