ধর্ম মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে কর বার্তা পৌঁছাবে এনবিআর
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে কর বার্তা পৌঁছাবে এনবিআর

কর প্রদানে সক্ষম ব্যক্তিদের করের আওতায় আনা ও মানুষের মধ্যে কর সচেতনতা তৈরিতে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অধীন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও গুরুজনদের মাধ্যমে সারাদেশে কর বার্তা পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

এজন্য ধর্মমন্ত্রণালয়ের সঙ্গে পার্টনারশীপ গড়েছে এনবিআর। সারাদেশের ৩ লাখ মসজিদ, অসংখ্য মন্দির, প্যাগোডা ও চার্জের গুরুদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর বার্তা পৌঁছে দিতে সহযোগিতা করবে মন্ত্রণালয়।

আজ বুধবার বিকেলে এনবিআর সম্মেলন কক্ষে এনবিআর আয়োজিত এনবিআর-ধর্ম মন্ত্রণালয় পার্টনারশীপ মতবিনিময় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

সভায় ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান প্রধান অতিথি, ধর্ম সচিব মো. আবদুল জলিল বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান এতে সভাপতিত্ব করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ধর্মমন্ত্রী বলেন, একটি দেশের উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি অর্থ। দেশের উন্নয়ন করতে হলে অর্থের যোগান দিয়ে এ ভিত শক্ত করতে হবে। সেজন্য দেশের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে অনীহা প্রকাশ না করে আনন্দের সাথে রাজস্ব প্রদান করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ধর্ম সচিব মো. আবদুল জলিল বলেন, কর ব্যবস্থায় জনগণের অংশগ্রহণ নিশ্চিত না করা গেলে রাজস্ব আহরণ শতভাগ সফল করা যাবে না। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সাথে এনবিআরের পার্টনারশীপের মাধ্যমে দেশের করযোগ্য সকল মানুষকে করজালের আওতায় আনার উদ্যোগ প্রশংসার দাবিদার।

সভাপতির বক্তব্যে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, এনবিআরের মতো ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ব্যাপ্তি সারাদেশে রয়েছে। এনবিআর-ধর্ম মন্ত্রণালয় প্রতিটি ক্ষেত্রে একত্রে কাজ করবে। মসজিদ, মন্দির, গীর্জা, প্যাগোডার মাধ্যমে যাতে রাজস্ব বার্তা, শিক্ষা যথাযথভাবে দেশের মানুষের কাছে পৌঁছে যায় সেজন্য এনবিআর কিছু প্রকাশনা তৈরি করছে। এসব ধর্ম মন্ত্রণালয়কে দেয়া হবে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সাথে পার্টনারশীপের মাধ্যমে এনবিআর আজ থেকে আর একা নয়, প্রতি ক্ষেত্রে ধর্ম মন্ত্রণালয়কে কাছে পাচ্ছে।

অর্থসূচক/রহমত/এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ