নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে সেল গঠন করবে এফবিসিসিআই
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে সেল গঠন করবে এফবিসিসিআই

দেশের নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে সহযোগী সেল গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) নব নির্বাচিত সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

আজ রোববার বিকালে মতিঝিলের ফেডারেশন ভবনে এফবিসিসিআই ২০১৭-২০১৯ মেয়াদের জন্য নব নির্বাচিত কমিটির কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

এ সময় বিদায়ী স্বারকে সই করেন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি মাতলুব আহমেদ। অন্যদিকে ক্ষমতা গ্রহণ স্বারকে সই করেন নব নির্বাচিত সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

নব-নির্বাচিত সভাপতি সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, সুন্দর পরিবেশে যাতে ব্যবাসয়ীরা তাদের ব্যবসা পরিচালনা করতে পারে, আমরা সেই লক্ষ্যে কাজ করব। আমাদের যেসব সহযোগী সংগঠন আছে তাদের সঙ্গে  আমাদের পরিকল্পনা শেয়ার করবো।

তিনি বলেন, আমাদের সামনে অনেক চ্যালেঞ্জ আছে। সেই চ্যালেঞ্জকে মোকাবেলা করে ব্যবাসয়ীদের সুযোগ সুবিধা বাড়ানোই হবে আমাদের মূল কাজ। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) খাতকে এগিয়ে নিতে হবে। আমাদের অনেক ব্যবসায়ীরা আছেন। যারা এসএমই ঋণের বিষয়ে না জানার কারণে ঋণ নিতে পারেন না। এ বিষয়ে এফবিসিসিআই ব্যবাসায়ীদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করবে।

এ সময় বিদায়ী সভাপতি সভাপতি মাতলুব আহমেদ বলেন, আমি গত নির্বাচনের সময় বলেছিলাম দুই বছর এফবিসিসিআইর জন্য বরাদ্দ রেখেছি। আমি সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পেরেছি। আজ থেকে আমি আমার ব্যবসায় মনোযোগ দিব।

তিনি বলেন, আমি অনেক চেষ্টা করে এফবিসিসিআইতে একটা নির্বাচনী পরিবেশ সৃষ্টি করতে পেরেছি, যার ফসল এবারের সুন্দর পরিবেশের নির্বাচন। নতুন কমিটি এ নির্বাচনী পরিবেশ অব্যাহত রাখতে পারবে বলে  তিনি আশা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ, এফবিসিসিআই ২০১৭-১৯ সাল নাগাদ পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করলেন নব নির্বাচিত সভাপতি শফিউল ইসলাম মহীউদ্দিন, প্রথম সহ-সভাপতি হয়েছেন শেখ ফজলে ফাহিম, ২য় সহ- সভাপতি মোহাম্মাদ মুনতাকিম আশরাফ।

এবারে নতুন পরিচালকরা হলেন-বাংলাদেশ রেস্টুরেন্ট ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের খন্দকার রুহুল আমিন, বাংলাদেশ প্লাস্টিক প্যাকেজিংয়ের আবু মোতালেব, বাংলাদেশ হার্ডবোর্ড ডিলারস অ্যাসোসিয়েশনের মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ পেপারস ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের মো. শফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ কোল্ড স্টোরেজ অ্যাসোসিয়েশনের মো. মুনতাকিম আশরাফ, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের শমী কায়সার, প্রাইভেট রেডিও অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ রাশেদুল হোসাইন চৌধুরী রনি, বাংলাদেশ রিকন্ডিশন্ড ভেহিক্যালস ইমপোর্টার্স অ্যান্ড ডিলারস অ্যাসোসিয়েশন প্রেসিডেন্ট মো. হাবিব উল্লাহ ডন, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের শাফকাত হায়দার, বাংলাদেশ লেদারগুডস ম্যানুফ্যাকচারার অ্যাসোসিয়েশনের আমজাদ হোসাইন, বাংলাদেশ সেকেন্ডারি টিপ্লেট অ্যাসোসিয়েশন নিজাম উদ্দিন রাজেশ, ক্যাব অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের হাফেজ হারুন, বাংলাদেশ এগ্রো-প্রসেসরের এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, বাংলাদেশ অটোস্পিয়ার পার্টস মার্চেন্ট অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যাসোসিয়েশনের মো. আয়েস খান, আউটসোর্সিং লজিস্টিক সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন মো. আবু নাসের ও বাংলাদেশ এগ্রিকালচার মেশিনারি মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের খন্দকার মনিরুর রহমান।

অন্যদিকে, দেশের বিভিন্ন জেলা চেম্বারগুলো থেকে  যেসকল পরিচালক হয়েছেন তারা হলেন—বাগেরহাটের হাসিনা নেওয়াজ, বরিশালের মো. নিজাম উদ্দিন, বগুড়ার মো. মাসুদুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আজিজুল হক, চুয়াডাঙ্গার দিলীপ কুমার আগারওয়ালা, কুমিল্লার মাসুদ পারভেজ খান, ফেনীর এ কে এম শাহেদ রেজা, গাজীপুরের আনোয়ার সাদাত সরকার, জামালপুরের রেজাউল করিম রেজনু, কিশোরগঞ্জের গাজী গোলাম আসরিয়া, মানিকগঞ্জের তাবারাকুল তোসাদ্দেক হোসেন খান, মুন্সীগঞ্জের কহিনুর ইসলাম, নরসিংদীর প্রবীর কুমার সাহা, নোয়াখালীর মো. আতাউর রহমান ভূঁইয়া, রাঙামাটির মো. বজলুর রহমান, সিরাজগঞ্জের মো. রিয়াদ আলী ও সুনামগঞ্জের খায়রুল হুদা।

অর্থসূচক/মেহদী

এই বিভাগের আরো সংবাদ