নরসিংদী সদরে ঘেরাও করা বাড়ির ৫ তরুণের আত্মসমর্পণ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নরসিংদী সদরে ঘেরাও করা বাড়ির ৫ তরুণের আত্মসমর্পণ

নরসিংদী সদরে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে গতকাল শনিবার সন্ধ্যার দিকে ঘেরাও করা বাড়িতে থাকা ৫ তরুণ আত্মসমর্পণ করেছেন। জঙ্গি সম্পৃক্ততা নেই দাবি করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার পর আজ রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তাদের বের করে আনে র‍্যাব।

এর আগে সকাল ৯টার দিকে র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান সাংবাদিকদের বলেন, ভেতরে অবস্থানকারীদের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা আত্মসমর্পণের জন্য প্রস্তুত বলে জানিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে তাদেরকে আত্মসমর্পণ করানোর জন্য আমরা চেষ্টা করছি। তাদের স্বজনদের সঙ্গেও কথা বলেছি।

Rab Narshingdi

আত্মসমর্পণ করা একটি জঙ্গিকে গাড়ির দিকে নিচ্ছেন র‍্যাব সদস্যরা।

বাড়ির ভেতর কিছু পাওয়া গেছে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে মুফতি মাহমুদ বলেন, আত্মসমর্পণ করার পর আমাদের বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল ওই বাড়িটি সার্চ করবে। কিছু পেলে আপনাদের জানানো হবে।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যার দিকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে নরসিংদীর গাবতলী উত্তরপাড়ায় জামেয়া কাসেমিয়া মাদ্রাসার কাছে কবরস্থানের পাশের একটি বাড়ি ঘেরাও করে পুলিশ।

র‍্যাব ১১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল কামরুল হাসান জানিয়েছিলেন, নব্য জেএমবির পাঁচ-ছয়জন সদস্য নাশকতার উদ্দেশ্যে বাড়িটিতে অবস্থান করছে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে ঘেরাও করা হয়েছে।

Rab Narshingdi2

সন্দেহজনক জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শুরুর আগে গাড়ি নিয়ে সেখানে উপস্থিত হয় র‍্যাব।

সিলেটের আতিয়া মহল থেকে পালানো কয়েকজন ‘জঙ্গি’ ওই বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে বলে দাবি করছে র‍্যাব। তবে ওই বাড়িতে থাকা তরুণদের স্বজনেরা গতকাল রাতেই দাবি করেন, জঙ্গিবাদের সঙ্গে কোনোভাবেই জড়িত নয় ওই তরুণরা।

এদিকে গতকাল সন্ধ্যায় বাড়িটি ঘেরাও করার পরই নিজেদের ‘নিরপরাধ আওয়ামী লীগ কর্মী’ দাবি করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন ওই বাড়িতে থাকা একজন। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে আবু জাফর নামের ওই ব্যক্তি লিখেছেন, আমাদের বাঁচান। আমরা নিরপরাধ। আমরা আওয়ামী লীগের কর্মী। আমরা ষড়যন্ত্রের শিকার। প্লিজ, আমাদের বাঁচান। আমরা সাধারণ ছাত্র। প্লিজ, আমাদের উদ্ধার করুন।

আবু জাফর মিয়া নরসিংদী সরকারি কলেজের ছাত্র। আরেকটি পোস্টে তিনি লিখেছেন, সাংবাদিক ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর স্যারদের উদ্দেশ্য করে বলছি, আমরা নিরপরাধ। আমরা কখনও শিবির, জঙ্গিবাদ সম্পর্কে ভালো করে জানিও না। প্লিজ, আপনারা আমাদের সার্চ করুন। দেখুন কিছু পান কিনা। আমরা নিরপরাধ। বাইরে থেকে আমাদের ছিটকিনি লাগানো। প্লিজ, ছিটকিনি খুলে আমাদের উদ্ধার করুন।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ