এটিএন বাংলায় শুরু হচ্ছে 'সেরা রন্ধনশিল্পী-২০১৭'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » কর্পোরেট সংবাদ

এটিএন বাংলায় শুরু হচ্ছে ‘সেরা রন্ধনশিল্পী-২০১৭’

দেশের সুপ্ত রন্ধনশিল্প প্রতিভা অন্বেষণের লক্ষ্যে টিভি রিয়্যালিটি শো ‘মিজান-মালয়েশিয়ান পাম অয়েল সেরা রন্ধনশিল্পী-২০১৭’ প্রতিযোগিতার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

মালয়েশিয়ান পাম অয়েল কাউন্সিল এবং বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লিমিটেডের ‘মিজান’ ফর্টিফাইড পাম অলিনের পৃষ্ঠপোষকতায়, ভ্রমণবিষয়ক পাক্ষিক দি বাংলাদেশ মনিটর এবং জনপ্রিয় টিভি চ্যানেল এটিএন বাংলা রিয়্যালিটি শো’টি পরিবেশন করছে।

আগস্ট মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে সপ্তাহে একটি করে মোট ১৪টি পর্বে এটিএন বাংলায় রিয়্যালিটি শো’টি সম্প্রচারিত হবে।

টিভি রিয়্যালিটি শো’র কার্যক্রম উদ্বোধন উপলক্ষে আজ শনিবার রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন দি বাংলাদেশ মনিটর সম্পাদক কাজী ওয়াহিদুল আলম, মালয়েশিয়ান পাম অয়েল কাউন্সিলের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক এ কে এম ফখরুল আলম, বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লিমিটেডের বিপণন ব্যবস্থাপক ফয়সাল মাহমুদ, এটিএন বাংলার উপদেষ্টা (প্রোগ্রাম) নওয়াজিশ আলী খান, ন্যাশনাল হোটেল এন্ড টুরিজম ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ, পারভেজ এ. চৈাধুরী, প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে টিভি রিয়্যালিটি শো’র জন্য সারাদেশ থেকে আগ্রহী রন্ধনশিল্পীদের কাছে এন্ট্রি আহ্বান করা হয়েছে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য আগামী ১০ জুলাই এর মধ্যে এন্ট্রি পাঠাতে হবে। প্রতিটি এন্ট্রিতে চারজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিকে পরিবেশনযোগ্য বাংলাদেশি মেইন ডিসের একটি রেসিপি, প্রতিযোগীর নাম, পাসপোর্ট সাইজ ছবি, বিভাগের নামসহ পূর্ণ যোগাযোগ ঠিকানা ও তথ্য থাকতে হবে। একজন প্রতিযোগী একাধিক এন্ট্রি পাঠাতে পারবেন।

৮টি বিভাগের প্রতিযোগীরা মোট চারটি অঞ্চল থেকে প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন। প্রাপ্ত রেসিপির ভিত্তিতে একটি অভিজ্ঞ জুরি কমিটি প্রতিটি অঞ্চল থেকে ৮ জন করে প্রতিযোগীকে রিয়্যালিটি শোতে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানাবেন।

রন্ধন ও পরিবেশনা শৈলী, পুষ্টিজ্ঞান এবং অন্যান্য বিবেচনায় শ্রেষ্ঠ প্রতিযোগীরা পরবর্তী পর্বগুলোতে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন। বিভিন্ন পর্বে এলিমিনেশনের পর অবশিষ্ট শ্রেষ্ঠ ৫জন প্রতিযোগী শেষ ৩টি পর্বে বিভিন্ন থিমের ওপর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। গালা রাউন্ডে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।

সেরা রন্ধনশিল্পী পুরস্কার হিসেবে পাবেন নগদ ৩ লাখ টাকা। প্রথম ও দ্বিতীয় রানার-আপ পাবেন যথাক্রমে ১ লাখ এবং ৫০ হাজার টাকা। এ ছাড়াও একজন প্রতিযোগীকে পুষ্টিজ্ঞানের জন্য সম্মানজনক “অধ্যাপিকা সিদ্দিকা কবীর ট্রফি” প্রদান করা হবে।

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন www.bangladeshmonitor.net/rondhonshilpi

এই বিভাগের আরো সংবাদ