মিরেরসরাইয়ে বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনে সমঝোতা স্বারক সই
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

মিরেরসরাইয়ে বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনে সমঝোতা স্বারক সই

মিরেরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল এলাকায় (এসইজেড) ১১৫০ একর জমিতে বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) এবং বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেপজা) মধ্যে সমঝোতা স্বারক সই হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সভাকক্ষে এই সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরিত হয়।

এতে বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী ও বেপজার নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান খান নিজ নিজ সংস্থার পক্ষে সমঝোতা স্বারকে সই করেন।  এ সময় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) মো. আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন।

মিরেরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল এলাকায় প্রায় ৩০ হাজার একর জমিতে একটি শিল্প শহর গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে বেজা।

বেজার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চলটি প্রতিষ্ঠিত হলে আগামী ১০ বছরে প্রায় ৫ লাখ মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে এবং বছরে অতিরিক্ত ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি সম্ভব হবে।বেপজার বর্তমানে যে ৮ টি ইপিজেড রয়েছে এর মধ্যে আয়তনে বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল মিরেরসরাই হবে সর্ববৃহৎ ।

সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বেজার প্রথম বার্ষিক প্রতিবেদন ২০১৬ এবং বিনিয়োগ সহায়ক গাইড আবুল কালাম আজাদের হাতে তুলে দেন বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান।

আগামী ১৫ বছরে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিয়ে কাজ করছে বেজা।যেখানে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান তৈরি হবে এবং আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে বেজার এসইজেড থেকে অতিরিক্ত ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি আয় সম্ভব হবে।

বেজা এই অঞ্চলগুলোতে ২০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের প্রত্যাশা করছে।এর অংশ হিসাবে ইতোমধ্যে ১৩টি প্রাইভেট অর্থনৈতিক অঞ্চল করার প্রি-কোয়ালিফিকেশন লাইসেন্স প্রদান করা হয়েছে এবং ৪ টি বেসরকারি অর্থনৈতিক অঞ্চলকে চুড়ান্ত লাইসেন্স প্রদান করেছে (মেঘনা অর্থনৈতিক অঞ্চল, আব্দুল মোনেম অর্থনৈতিক অঞ্চল,আমান অর্থনৈতিক অঞ্চল ও বে অর্থনৈতিক অঞ্চল)।

এছাড়া মোংলা অর্থনৈতিক অঞ্চলের ডেভলপার নিয়োগ সম্পন্ন হয়েছে ও মিরেরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল (প্রথম পর্যায়) ডেভলপার নিয়োগের জন্য নির্বাচিত ডেভলপারকে লেটার অব অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে।পাশাপাশি নাফ ট্যুরিজম পার্ক উন্নয়নে ডেভলপার নির্বাচন প্রক্রিয়া প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ