ধর্ষক সাফাতের গাড়িচালক ও বডিগার্ড গ্রেপ্তার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ধর্ষক সাফাতের গাড়িচালক ও বডিগার্ড গ্রেপ্তার

বনানীতে দুই তরুণী ধর্ষণের মামলায় অন্যতম আসামী সাফাতের গাড়িচালক বেল্লাল ও বডিগার্ড রহমত আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাজধানীর নবাবপুর থেকে বিল্লালকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। আর উত্তরা থেকে রহমত আলীকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বডিগার্ড আবুল কালাম আজাদ ওরফে রহমত আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে নবাবপুরের ইব্রাহিম আবাসিক হোটেল থেকে বিল্লালকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নবাবপুরে ইব্রাহীম নামক এক আবাসিক হোটেল থেকে বেল্লালকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি বলেন, ধর্ষণে সহযোগিতার অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি মামলার ৪ নম্বর আসামী। তাকে মূল আসামীর মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আগামীকাল রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে।

গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) মোহাম্মদ ইউসুফ আলী জানান, আজ সন্ধ্যার পরে গুলশান এলাকা থেকে রহমত আলীকে গেপ্তার করা হয়। সে এখন গোয়েন্দা পুলিশের উত্তর বিভাগের হেফাজতে রয়েছে।

প্রায় দেড় মাস আগে ধর্ষণের শিকার বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীর একজন গত ৬ মে বনানী থানায় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ এবং সাফাতের বন্ধু নাঈম আশরাফসহ আরো ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

এজাহারের বর্ণনা অনুযায়ী, গত ২৮ মার্চ বনানীর রেইনট্রি হোটেলে সাফাত ও নাঈম দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছিলেন। অন্য তিনজন ছিলেন সহায়তাকারী।

গত ৬ মে মামলা করার পর সাফাত ও সাদমানকে ১১ মে সিলেট থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। নাঈম আশরাফ এখনও পলাতক আছেন।

অর্থসূচক/শাহীন/এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ