গরমের ছুটিটা শিশুরা চুটিয়ে কাটাক
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

গরমের ছুটিটা শিশুরা চুটিয়ে কাটাক

বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গরমের ছুটি শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে গ্রীষ্মের ফল আর বিস্তর অবসরটা চুটিয়ে উপভোগ করার সময় শুরু হয়েছে। কাঠফাটা রোদে স্কুলে যাওয়ার হাত থেকেও রেহাই পেয়েছে শিশুরা।

তবে অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে ছুটির সময়টা যেন তারা চুটিয়ে ব্যবহার করতে পারে। ছুটির এই সময়টা বাচ্চাদের শেখা ও মানসিক বিকাশের জন্য অত্যন্ত জরুরি। তাই অভিভাবকদের উচিত ছুটির সময়টা এমন ভাবে কাজে লাগানো যাতে মজা, আনন্দের মাঝেই বাচ্চা শিখে নিতে পারে বেশ কিছু জিনিস।

সৃজনশীলতা

বাচ্চার হাতে এক বাক্স রং তুলে দিন। নিজের মনের মতো করে ডিজাইন করুক কোনো টি-শার্ট বা বুক কভার। অথবা, কোনো কিছু দিয়ে নিজেই বানিয়ে ফেলুক কোনো মিউজিক ইন্সট্রুমেন্ট বা কোনো গেম। এতে ওদের কল্পনাশক্তি যেমন বাড়বে, তেমনই উন্নত হবে সৃজনশীলতাও।

অ্যাডভেঞ্চার

ভ্রমণ বিলাস নয়, ওকে নিয়ে যান পাহাড়ে ট্রেকিং বা রিভার ক্যাম্পিং, অথবা জঙ্গল সাফারিতে। পাথর কুড়নো, প্রজাপতি ধরার মতো অ্যাডভেঞ্চারে মেতে থাকুন শিশুর সঙ্গে। এতে ওর যেমন প্রকৃতির সঙ্গে পরিচয় ঘটবে, তেমনই যে কোনো পরিবেশে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা, সাহস, উদ্যমও তৈরি হবে।

সকালবেলা

পার্কে গেম খেলা হোক বা সাইকেল চালানো। সকালবেলাটা ওর কাছে উপভোগ্য করে তুলুন। এতে ওর স্বাস্থ্যের যেমন উন্নতি হবে, তেমনই সকালে ওঠার মতো ভালো অভ্যাসও তৈরি হবে। অনেক সময়ই শিশুরা দীর্ঘ ছুটি কাটানোর পর আবার সকালে উঠে স্কুল যেতে গড়িমসি করে। এ ভাবে ওদের সকালে ওঠার অভ্যাসও বজায় থাকবে।

রান্নাঘর

বাচ্চাকে ওর নিজের মতো করে খাবার বানাতে দিন। কোনো কুকবুক কিনে দিন। ওর সঙ্গে রান্না করুন যাতে রান্নাঘরে সময় কাটানো উপভোগ করে। বাজারে সঙ্গে নিয়ে যান। জিনিসপত্র, টাকা পয়সার হিসেব রাখতে শেখান।

পড়ার অভ্যাস

কোনো ছবির বই হোক, কমিকস বা কোনো ম্যাগাজিন বা কোনো গল্পের বই। বাচ্চাকে সঙ্গে পড়ুন। ওর পড়ার অভ্যাস ও পড়ার মাধ্যমে শেখার অভ্যাস তৈরি করুন। এতে ওর শব্দভাণ্ডারও উন্নত হবে।

অর্থসূচক/তাবাচ্ছুম

এই বিভাগের আরো সংবাদ