এরশাদের নেতৃত্বে নতুন জোট ইউএনএ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এরশাদের নেতৃত্বে নতুন জোট ইউএনএ

সম্মিলিত জাতীয় জোট বা ইউনাইটেড ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (ইউএনএ) নামের নতুন এক জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে। এর নেতৃত্বে রয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে বের হওয়া জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মোহাম্মদ (এইচ.এম.) এরশাদ।

আজ রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নতুন এই জোটের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ দূত এইচ.এম. এরশাদ। জাতীয় পার্টি, নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত দল ইসলামিক ফ্রন্ট, জাতীয় ইসলামী মহাজোট এবং বাংলাদেশ জাতীয় জোট প্রাথমিকভাবে এই নতুন জোটে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

UNA (3)

সম্মিলিত জাতীয় জোট বা ইউনাইটেড ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (ইউএনএ) নামের নতুন এক জোটের আত্মপ্রকাশের পর সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ। ছবি: মহুবার রহমান

মাসখানেক আগে ৩৪টি ইসলামপন্থি সংগঠনকে নিয়ে আত্মপ্রকাশ করা ‘জাতীয় ইসলামী মহাজোট’ এবং ২০১৫ সালে ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার নেতৃত্বে যাত্রা শুরু করে ৩১ সংগঠনের ‘বাংলাদেশ জাতীয় জোট; পরবর্তীতে নাজমুল হুদাকে অব্যাহতি দেওয়া হয় ওই জোট থেকে।

এইচ.এম. এরশাদ বলেন, স্বাধীনতার চেতনা এবং ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী রাজনৈতিক দলগুলো এই জোটের অন্তর্ভুক্ত হতে পারবে। কোনো স্বাধীনতাবিরোধী রাজনৈতিক দলের স্থান এই জোটে হবে না।

তিনি আরও বলেছেন, তিনটি ‘মৌলিক আদর্শের’ ওপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত ইউনাইটেড ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স। সেগুলো হলো- সব ধর্মীয় মূল্যবোধের প্রতি সমান মর্যাদা প্রদর্শন; স্বাধীনতার চেতনা এবং বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক জীবনবোধ নিশ্চিত করা।

UNA (2)

সম্মিলিত জাতীয় জোট বা ইউনাইটেড ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (ইউএনএ) নামের নতুন এক জোটের আত্মপ্রকাশের পর সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ। ছবি: মহুবার রহমান

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, জোটের অন্তর্ভুক্ত প্রতিটি দলের মহাসচিবরা এ জোটের মুখপাত্র হিসেবে থাকবেন। আর জাতীয় পার্টির রুহুল আমিন হাওলাদার হবেন জোটের প্রধান মুখপাত্র। জোটগতভাবে জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেওয়া এবং সরকার গঠন করাই এই জোটের উদ্দেশ্য।

সংবাদ সম্মেলনে এরশাদ বলেন, দেশ ও জাতির প্রয়োজনে এবং আধুনিক বাংলাদেশ গড়তে আজ একটি বৃহত্তর রাজনৈতিক জোট গঠনের ঘোষণা দিচ্ছি। অনেকে আমার আহ্বানে সাড়া দিয়ে ইতোমধ্যে এগিয়ে এসেছেন। জোট গঠনের পর আরও কেউ অন্তর্ভুক্ত হতে চাইলে বিবেচনা করা হবে।

তিনি জানান, ইসলামিক ফ্রন্টের চেয়ারম্যান এম.এ. মান্নান, জাতীয় ইসলামী মহাজোটের চেয়ারম্যান আবু নাসের ওয়াহেদ ফারুক এবং বাংলাদেশ জাতীয় জোটের (বিএনএ) চেয়ারম্যান সেকান্দার আলী মনি নতুন জোটের ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করেছেন।

অর্থসূচক/

এই বিভাগের আরো সংবাদ