শতভাগ পরিচ্ছন্ন-আলোকিত নগরী গড়ার প্রত্যয় নাছিরের
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page
শপথ গ্রহণের ২ বছর

শতভাগ পরিচ্ছন্ন-আলোকিত নগরী গড়ার প্রত্যয় নাছিরের

নগরবাসীর সেবা করার দায়িত্ব নেওয়ার পাশাপাশি ৩০০ কোটি টাকার বেশি দেনার দায়ও নিতে হয়েছে। নানা জটিলতা-অব্যবস্থাপনাও ছিল কর্পোরেশনে। দুই বছর আগের সেই চিত্রের পরিবর্তন হয়েছে। কাজে গতি এসেছে; সবুজ ও পরিচ্ছন্ন চট্টগ্রাম গড়ার কাজ চলছে। ৩ বছরের মধ্যে শতভাগ উন্নয়ন, পরিচ্ছন্ন ও সবুজ আলোকিত নগরী গড়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

CTG City Gate

চট্টগ্রাম সিটি গেট। ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনের ২ বছর পূর্তি উপলক্ষে আজ রোববার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে এসব কথা বলেন চসিক মেয়ার আ.জ.ম. নাছির উদ্দীন।

তিনি বলেন, নানামুখী জটিলতা ও অব্যবস্থাপনা অতিক্রম করে নগরীকে নৈসর্গিক ও দৃষ্টিনন্দন করার প্রত্যয়ে বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়েছে। সবুজ নগরী গড়ার প্রত্যয়ে জামালখান, উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ড এবং এয়ারপোর্ট রোডকে প্রথম পর্যায়ে বিউটিফিকেশন কার্যক্রমের আওতায় আনা হচ্ছে। সমগ্র চট্টগ্রামকে সবুজ এবং পরিচ্ছন্ন নগরীতে রূপান্তরের প্রয়াস অব্যাহত আছে।

বিবৃতিতে মেয়র বলেন, বিগত সময়ের প্রায় ৩০০ কোটি টাকার বেশি দায়-দেনা কাঁধে নিয়ে নগরবাসীর সেবা প্রদানের দায়িত্ব গ্রহণ করেছি। বর্তমানে প্রায় ৭১৮ কোটি টাকার উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করার পাশাপাশি জাইকার অধীনে ৩২৪ কোটি টাকার উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের পথে আছে। নগরীর সড়কে এলইডি লাইট লাগানোর কার্যক্রম হাতে নিয়েছি; যা দ্রুত বাস্তবায়ন হবে।

আ.জ.ম. নাছির উদ্দীন বলেন, সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান বাড়াতে শিক্ষা নীতি প্রণয়ন করেছি।

তিনি আরও বলেন, নগরবাসীর  সুবিধার্থে নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে ডোর টু ডোর আবর্জনা সংগ্রহের উদ্দেশ্যে নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডের প্রতিটি পরিবার, দোকানে নতুন করে বিনামূল্যে ডাস্টবিন বিতরণ করেছি। মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে নগরবাসীর সার্বিক সেবা নিশ্চিত করতে পারবো বলে আশা করছি।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল ঢাকার দুইটি এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিপুল ভোটের ব্যবধানে প্রথমবারের মতো মেয়র নির্বাচিত হন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ.জ.ম. নাছির উদ্দীন।

সে বছরের ৩০ এপ্রিল নির্বাচনী গেজেট প্রকাশের পর ৬ মে ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত তিন মেয়রকে শপথ করান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চসিক মেয়রের শপথ গ্রহণের ২ বছর পূর্তি হয়েছে গতকাল শনিবার।

আইনি বাধ্যবাধকতায় এবং সিটি করপোরেশনের চতুর্থ নির্বাচিত পরিষদের মেয়াদ শেষ না হওয়ায় নির্বাচিত মেয়রের চসিকের দায়িত্ব গ্রহণ বিলম্বিত হয়। পরবর্তীতে ২০১৫ সালের ২৬ জুলাই মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন আ.জ.ম. নাছির উদ্দীন। এরপর ৫ম নির্বাচিত পরিষদের প্রথম সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয় ২০১৬ সালের ৬ আগস্ট।

অর্থসূচক/দেবব্রত/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ