‘চালের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টিকারীদের ছাড় নয়’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘চালের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টিকারীদের ছাড় নয়’

দেশের এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী চালের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছে অভিযোগ তুলে খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, এর সঙ্গে জড়িতদের এক বিন্দুও ছাড় দেওয়া হবে না।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর খাদ্যভবনে চালকল ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন। হাওরে অকাল বন্যায় ফসলহানির পর চালের দাম ২০ শতাংশেরও বেশি বেড়ে যাওয়ায় এ বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

riceখাদ্যমন্ত্রী জানান, হাওরে ফসলের যে ক্ষতি হয়েছে, সেটা সারা দেশের ফসলের তুলনায় কিছুই না। এ বছর চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল প্রায় এক কোটি ৯১ লাখ মেট্রিক টন। সেখানে হাওরে বন্যায় ক্ষতি হয়েছে ছয় লাখ মেট্রিক টন ধানের। সব কিছু বাদ দিয়ে হলেও এবার আমরা এক কোটি ৮০ লাখ টন চাল সংগ্রহ করতে পারবো। এটা দেশের চাহিদার চেয়ে বেশি।

তিনি বলেন, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী বাজারে কৃত্রিম সংকট তৈরি করে চালের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। যারা বাজারে কৃত্রিম সংকট তৈরি করছে তাদেরকে কোনোভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না।

কামরুল ইসলাম বলেন, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী চাল কল মালিকরা একটি নির্দিষ্ট সময় পর সরকারের কাছে একটি পাক্ষিক প্রতিবেদন পেশ করে। প্রতিবেদনে তাদের গুদামে কী পরিমাণ চাল মজুদ রয়েছে সেটা উল্লেখ থাকে। চালকল মালিকরা এবারেও আমাদের কাছে তাদের প্রতিবেদন পেশ করেছে। প্রতিবেদনে কোনো অসামঞ্জতা আমাদের চোখে পড়েনি। পাক্ষিক প্রতিবেদনে সন্দেহ হলে আমরা অবশ্যই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

অর্থসূচক/আজম/এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ