এসএসসি-সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮০.৩৫%; কমেছে পাসের হার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এসএসসি-সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮০.৩৫%; কমেছে পাসের হার

২০১৭ সালে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে ফল হস্তান্তর করবেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৮০ দশমিক ৩৫ শতাংশ পাস করেছে।  ২০১৬ সালের তুলনায় এবার পাসের পর ৭ দশমিক ৯৪ শতাংশ কমেছে। ছাত্রদের তুলনায় শূন্য দশমিক ৮৫ শতাংশ বেশি ছাত্রী পাস করেছে এবারের এসএসসিতে।

তিনি আরও জানান, এবারের এসএসসিতে পাশ করা পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ১ লাখ ৪ হাজার ৭৮১ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। পাসের হারের দিকে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ড। ওই শিক্ষাবোর্ডের ৮৩ দশমিক ৯৮ শতাংশ পরীক্ষার্থী পাস করেছে।

Nurul Islam Nahid

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। ছবি: মহুবার রহমান

দুপুর সাড়ে ১২টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে করে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল ঘোষণা করবেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এসময় ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরবেন তিনি। দুপুর ২টা থেকে ফল জানতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ফলাফল জানতে পারবে। এছাড়া শিক্ষামন্ত্রণালয়, বোর্ডের ওয়েবসাইট এবং মোবাইল ফোনের এসএমএসের মাধ্যমেও ফল জানা যাবে।

গত ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ২ মার্চ পর্যন্ত তত্ত্বীয় এবং ৪ থেকে ১১ মার্চ পর্যন্ত এসএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে।

৮টি সাধারণ বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে ১৪ লাখ ২৫ হাজার ৯০০ জন, মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৫০১ ও এসএসসি ভোকেশনালে (কারিগরি) এক লাখ ৪ হাজার ২১২ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছে।

গত বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ৮৮ দশমিক ২৯ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করে। এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পায় ১ লাখ ৯ হাজার ৭৬১ জন।

ওয়েবসাইট ও এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানার নিয়ম:

www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইট থেকে গিয়ে ফল ডাউনলোড করতে পারবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। বোর্ড থেকে ফলাফলের কোনো হার্ডকপি সরবারহ করা হবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর থেকে ফলাফলের হার্ডকপি সংগ্রহ করা যাবে।

শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট (http://www.educationboardresults.gov.bd) থেকে ফল জানতে পারবে পরীক্ষার্থীরা।

এছাড়া যেকোনো মোবাইল অপারেটর থেকে এসএমএস করে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল জানা যাবে। SSC/DAKHIL লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখতে হবে, স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৭ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে ফল জানা যাবে।

ফল পুনঃনিরীক্ষা:

রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটকের মাধ্যমে আগামী ৫ থেকে ১১ মে পর্যন্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে।

ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করতে RSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেওয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) দেওয়া হবে। প্রতিটি বিষয় ও প্রতি পত্রের জন্য ১২৫ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে। যে সব বিষয়ের দুইটি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে- যে সব বিষয়ের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করলে দুইটি পত্রের জন্য মোট ২৫০ টাকা ফি কাটা হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে স্পেস দিয়ে পিন নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করা যাবে। এক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে।

অর্থসূচক/তাবাচ্ছুম/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ