বাংলাদেশ-ভারত ২২ চুক্তি ও সমঝোতা সই
সোমবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বাংলাদেশ-ভারত ২২ চুক্তি ও সমঝোতা সই

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে প্রতিরক্ষা, ঋণ, মহাকাশ, পারমাণবিক শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার, তথ্যপ্রযুক্তি, বিদ্যুৎ, জ্বালানিসহ বিভিন্ন খাতে ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

আজ শনিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শীর্ষ বৈঠকের পরে তাদের উপস্থিতেই এইসব চুক্তি ও সমঝোতা সই হয়।

এসময় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যয়ও উপস্থিত ছিলেন। মুলত তার বিরোধীতায়ই তিস্তার পানি বন্টন চুক্তিটি আটকে আছে।

আজ দুপুরে হায়দরাবাদ হাউসের ডেকান স্যুটে শুরু হওয়া হাসিনা-মোদি বৈঠকটি  আধা ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলে।

বৈঠকের পর দুই প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে প্রতিরক্ষা, ঋণ, মহাকাশ, পারমাণবিক শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার, তথ্যপ্রযুক্তি, বিদ্যুৎ, জ্বালানিসহ বিভিন্ন খাতে ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়।

তবে চুক্তির জন্য আরও অপেক্ষা করতে হবে বলে যুগ্মসচিব শ্রীপ্রিয় রাঙ্গানাথানের বরাত দিয়ে এনডিটিভি বলছে, প্রতিরক্ষা, ঋণ, মহাকাশ, পারমাণবিক শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার, তথ্যপ্রযুক্তি, বিদ্যুৎ, জ্বালানিসহ বিভিন্ন খাতে মোট ২২টি চুক্তি ও সমোঝতা  সই হলেও তিস্তা চুক্তি এবার হচ্ছে না।

তবে রাঙ্গানাথান আশা প্রকাশ করেন, বাংলাদেশের  প্রধানমন্ত্রীর এই সফর তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা বাড়িয়েছে। এখন কিছু আনুষ্ঠানিকতার পরেই তিস্তা চুক্তির সই হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন ভারতের ওই আমলা।

শনিবার সকালে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনার মধ্য দিয়ে ভারত সফরে দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচি শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রধানমন্ত্রীকে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

রাষ্ট্রপতি ভবনের অভ্যর্থনাস্থলে সকাল ৯টায় শেখ হাসিনার গাড়ি ঢোকার সঙ্গে রাষ্ট্রপতির গার্ড রেজিমেন্টের অশ্বারোহী দল তাকে পাহারা দিয়ে অনুষ্ঠান মঞ্চের কাছে নিয়ে যায়। শেখ হাসিনা গার্ড পরিদর্শনের পর মোদি সরকারের মন্ত্রীদের সঙ্গে পরিচিত হন।

রাষ্ট্রপতি ভবনের ওই অনুষ্ঠানের পর রাজঘাটে শেখ হাসিনা মহাত্মা গান্ধীর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

বৈঠক ও সমোঝতা সই এর পর তার সম্মানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দেওয়া মধ্যাহ্নভোজে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানের পরের পর্বে মোড়ক উন্মোচন হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনীর হিন্দি সংস্করণের। বাংলা থেকে আত্মজীবনীর হিন্দি অনুবাদ করেছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বিকেলে শেখ হাসিনা দিল্লি সেনানিবাসের মানেকশ সেন্টারে মুক্তিযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকৃত ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর সাত সদস্যের পরিবারের হাতে মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা তুলে দেবেন। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেবেন নরেন্দ্র মোদি।

রাতে তিনি ভারতের উপরাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারির সঙ্গে তার বাসভবনে দেখা করতে যাবেন।

চার দিনের এই সফরে শেখ হাসিনা শুক্রবার নয়া দিল্লিতে পৌঁছনোর পর অপ্রত্যাশিতভাবে তাকে অভ্যর্থনা জানাতে বিমানবন্দরে উপস্থিত হন মোদি। সফর শেষে সোমবার প্রধানমন্ত্রীর ফেরার কথা রয়েছে।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ