ইঁদুর যেখানে মিড ডে মিল!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ইঁদুর যেখানে মিড ডে মিল!

ভারতের বিভিন্ন এলাকায় মাঝে মাঝেই মিড ডে মিল খেয়ে শিক্ষার্থীদের অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনা শোনা যায়। আবার খাবারের মধ্যে মরা টিকটিকি, ইঁদুর ইত্যাদি পাওয়া গেছে এমন খবরও রয়েছে পত্রিকার পাতায়।

কিন্তু এমন স্কুলও আছে যেখানে মিড ডে মিলের নামে ইঁদুর-খরগোশ খেতে দেওয়া হয়?  সম্প্রতি এনডিটিভি চ্যানেলের একটি রিপোর্টের বরাত দিয়ে এমনই এক তথ্য জানিয়েছে বেঙ্গালি ওয়ান ইন্ডিয়া। বলা হয়েছে ঝাড়খণ্ডের সাহেবগঞ্জ জেলার একটি এলাকায় শিক্ষার্থীরা খিদে পেলে ইঁদুর-খরগোশ খায়।

সাহেবগঞ্জ জেলার রাজমহল হিল নামের দরিদ্রপীড়িত এলাকায় ইঁদুর খাওয়ার রেওয়াজ রয়েছে। তবে প্রবীণ-বয়স্করা চান না তাদের সন্তানেরা এরকম খাবার গ্রহণ করতে শিখুক। বরং পড়ালেখা যেনো করতে পারে সেদিকেই লক্ষ্য তাদের।

দুপুর বেলা ইঁদুর দিয়ে মিড ডে মিল করে তারা।

তাই সেখানে দুটি  স্কুল থাকলেও এখন সেখানে কোনো শিক্ষক নেই। শিক্ষক নেই তাই পড়ুয়াও নেই। গ্রাম প্রধানের কথায় শুরুর দিকে এই স্কুলগুলিতে ৫০ থেকে ৬০ জন শিক্ষার্থী থাকতো। কিন্তু ধীরে ধীরে শিক্ষক আসা বন্ধ করে দেওয়ায় ছাত্রছাত্রীর সংখ্যাও কমতে থাকে।

আর ছাত্ররা জানায়, প্রথম প্রথম মিড ডে মিল পাওয়া যেত। তখন সবাই স্কুলে যাওয়ার চেষ্টা করতো। আস্তে আস্তে মিড ডে মিলও বন্ধ হয়ে যায়। খিদে মেটাতে ছোটরা ইঁদুর খরগোশ শিকার করে খেতে শুরু করে।

তবে সরকারি খাতায় এখানে স্কুল রয়েছে, মিড ডে মিলও নাকি দেওয়া হয়। কিন্তু বাস্তবে স্কুলও নেই, নেই মিড ডে মিলও।

খাতায় কলমে যখন প্রকল্প চালু রয়েছে তখন তার টাকাও সরকারের থেকে আসছে। কিন্তু সেই টাকা কোথায় যাচ্ছে বলে প্রশ্ন তুলেছেন সুধীজনরা।

অর্থসূচক/কাঙাল মিঠুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ