খাদিজা হত্যা চেষ্টার মামলায় বদরুলের যাবজ্জীবন
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

খাদিজা হত্যা চেষ্টার মামলায় বদরুলের যাবজ্জীবন

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা বেগম হত্যা চেষ্টা মামলার আসামি বদরুল আলমকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ বুধবার সিলেটের মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক আকবর হোসেন মৃধা এই রায় ঘোষণা করেন।

Badrul

পুলিশ হেফাজতে থাকা বদরুল আলম।

সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে গত রোববার এই মামলার যুক্তিতর্ক শেষ হয়। এরপর রায় ঘোষণার জন্য ৮ মার্চ তারিখ ধার্য করেন বিচারক।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৩ অক্টোবর এমসি কলেজে পরীক্ষা শেষে ফেরার পথে তাকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে বদরুল আলম।  বদরুলের চাপাতির আঘাতে গুরুতর আহত খাদিজাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে খাদিজা বেশ কয়েকদিন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ছিলেন। পরবর্তীতে তাকে সাভারের পক্ষাঘাতগ্রস্ত পুনর্বাসন কেন্দ্রে (সিআরপি) চিকিৎসা দেওয়া হয়।

ঘটনার পরপরই শিক্ষার্থীরা বদরুলকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পরে খাদিজার চাচা আবদুল কুদ্দুস বাদী হয়ে বদরুলকে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করেন। ৫ অক্টোবর বদরুল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। ৮ নভেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিলেট মহানগরীর শাহপরান থানার এসআই হারুনুর রশীদ আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

গত বছরের ১৫ নভেম্বর অভিযোগপত্র গ্রহণ করে আদালত। ২৯ নভেম্বর বদরুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে মামলার বিচার শুরু হয়। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি মামলার ৩৭ জন সাক্ষীর মধ্যে সবশেষ সাক্ষী হিসেবে খাদিজার সাক্ষ্য নেওয়া হয়। এরপর গত ১ মার্চ সিলেটের মুখ্য মহানগর বিচারিক হাকিম আদালত থেকে মামলাটি মহানগর দায়রা জজ আদালতে স্থানান্তরিত হয়।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ