এই ফাল্গুনে বরই আচার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এই ফাল্গুনে বরই আচার

বর্তমানে খাবারের একটা বিশেষ উপাদানে পরিণত হয়েছে আচার। আচার পছন্দ করে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াই ভার। আমাদের দেশে মৌসুম হিসেব করে মৌসুমি ফলের আচার তৈরি হয় প্রায় ঘরে ঘরে। আমের সময়ে আমের আচার, জলপাই এর সময় জলপাই আচার। তেমনি বরই এর সময় বরই আচার। এখন  বরই এর মৌসুস শেষ প্রায়। তবে আচার করবেন বলে অনেকেই বরই শুকিয়ে রেখেছেন ।boroi-achar

এখন অবশ্য আচারের অন্যতম উপাদান সরিষার তেলেরও মৌসুম। টাটকা সরিষার টাটকা তেল আচারের স্বাদ বাড়িয়ে দেয় কয়েক গুণ।

তাই এই ফাল্গুনে করে ফেলতে পারেন বরই এর মজাদার কয়েক ধরনের আচার। আজ জেনে নিন শুকনো বরই এর ঝাল আচার করা পদ্ধতি।

উপকরণ:

– শুকনা বরই (৪০০ গ্রাম)

– লবণ পরিমাণমতো

– লাল মরিচ গুঁড়া পরিমাণমতো

– চিনি পরিমাণমতো

_পাঁচ ফোড়ন পরিমাণমতো

_ রসুর পরিমাণমতো

_ সরিষার তেল

_পানি

প্রস্তুত প্রণালী:

শুকনা বরই ভালো করে ধুয়ে ৩/৪ ঘণ্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। ‌এতে করে বরইয়ের চামড়া পানিতে ভিজে বেশ নরম হয়ে যাবে। এবার চুলা জ্বালিয়ে একটা হাড়িতে দুই কাপ পানি দিয়ে তাতে বরইগুলো ঢেলে দিন। এবার পরিমানমতো লবণ ও লাল মরিচ গুঁড়া দিয়ে মাঝে মাঝে নেড়ে দিন। বরইগুলো গলে গেলে এর মধ্যে পরিমাণমতো চিনি দিন। এরপর নাড়তে থাকুন।

বরই সিদ্ধ হয়ে গেলে ও সব মসলা মিশে গেলে একটি কড়াইয়ে সরিষার তেল গরম করে তাতে রসুন ছেড়ে দিন। রসুন বাদামী রঙ এর হয়ে আসলে পাঁচ ফোড়ন ছেড়ে দিন।

এবার মসলাদার সিদ্ধ বরই তেলে ছাড়ুন। কিছুক্ষণ জ্বাল দিন। তারপর ঠান্ডা হলে বয়ামে ঢুকিয়ে সংরক্ষণ করুন।

সতর্কতা:

সব ধরনের আচারই দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করা যায়। তবে আচার সংরক্ষণের আগে খেয়াল রাখতে হবে যেন তা আদ্র না থাকে। আচারে জলীয় অংশ থাকলে তাতে দ্রুত ছত্রাক জন্মাতে পারে। নষ্ট হতে পারে আপনার স্বাদের আচার।

আচার যদি কয়েক মাস সংরক্ষণ করতে চান তবে মাঝে মধ্যে অবশ্যই রোদে দিন।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ