রাজশাহীতে চলছে নিরুত্তাপ অবরোধ কর্মসূচি

rajshahi Clash

rajshahi mapরাজশাহীতে ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে ১৮ দলীয় জোটের অবরোধ কর্মসূচি। গত সপ্তাহে টানা ১৩১ ঘণ্টার অবরোধের পর আবার শনিবার থেকে চলছে টানা ৭২ ঘণ্টার অবরোধ। অবরোধে মহানগরীর কোথাও ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের রাস্তায় দেখা যায়নি। নামমাত্র বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন জোটের নেতাকর্মীরা।

দ্বিতীয় দিনের ৭২ ঘণ্টা অবরোধে আগের মতো উত্তাপ নেই। বিচ্ছিন্ন কিছু মিছিল ও পিকেটিংয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ রয়েছে ১৮ দলীয় কর্মসূচি। রোববার সকালে মহানগরীতে মিছিল-সমাবেশ করেছে ১৮ দল। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মিজানুর রহমান মিনু ও সিটি মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের নেতৃত্বে মহানগরীর কাদিরগঞ্জ এলাকার মহিলা কলেজের সামনে থেকে মিছিলটি বের হয়। মিছিলটি মহানগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিনণ করে রাজশাহী কলেজ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়ে। পরে সেখানে এক সংক্ষিপ্ত  সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া দুপুর পর্যন্ত মহানগরীর কোথাও কোনো নাশকতার খবর পাওয়া যায়নি।

এর আগে শনিবার অবরোধ সমর্থনে রাজশাহীতে মিছিল সমাবেশ করেছে ১৮ দল। টানা এ অবরোধের প্রথম দিন মহানগরীতে ধরনের কোনো নাশকতার ঘটনা ঘটেনি। শনিবার ভোরে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় চারঘাট-বানেশ্বর সড়কের নাওদাড়া এলাকায় ফলবোঝাই একটি ট্রাকে অগ্নিসংযোগ করে অবরোধকারীরা। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ শলুয়া ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রানাকে আটক করেছে।

এদিকে, রাজশাহীতে অবরোধের কারণে দূরপাল্লার সব বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতার আশঙ্কায় পরিবহন মালিকরা তাদের যানবাহন চলাচল বন্ধ রেখেছেন। তবে সকাল গড়াতেই মহানগরীতে অটোরিকশা, রিকশাসহ বিভিন্ন হালকা যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসছে। রাজশাহী রেলস্টেশন থেকে ঢাকাসহ বিভিন্ন রুটের ট্রেন নিজ নিজ গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে যাচ্ছে। অফিস-আদালতে কাজ-কর্ম চলছে ঢিলে ঢালাভাবে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান জানান, আইন শৃংখলা বাহিনীর কঠোর অবস্থানের কারণে রোববার মহানগরীর কোথাও কোনো বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। এছাড়া যেকোনো ধরনের নাশকতা এড়াতে মহানগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

এআর