বিদেশি বিনিয়োগ টানতে আন্তর্জাতিক স্টক এক্সচেঞ্জ চালু করল ভারত
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বিদেশি বিনিয়োগ টানতে আন্তর্জাতিক স্টক এক্সচেঞ্জ চালু করল ভারত

বিদেশি বিনিয়োগ আরও বাড়াতে ইন্টারন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ চালু করেছে ভারত। আগামী সোমবার থেকে এ মার্কেটে লেনদেন হবে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সম্প্রতি বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের (বিএসই) সহযোগী এই প্রতিষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

গুজরাটের গিফটসিটিতে এই স্টক এক্সচেঞ্জ চালু হয়েছে।

ইন্টারন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ চালু করল ভারত

ইন্টারন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ চালু করল ভারত

বিএসই চেয়ারম্যান সুধাকর রাও বলেন, দেশের অর্থনৈতিক অবকাঠামো ও উন্নয়ন খাতের প্রয়োজনে এই বাজার ব্যবহার হবে। এই গেটওয়ের মাধ্যমে মূলধন সংগ্রহ করতে পারবে বিভিন্ন কোম্পানি। এতে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা সর্বনিম্ন খরচে লেনদেনের সুযোগ পাবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নরেন্দ্র মোদি বলেন, এই এক্সচেঞ্জ প্রথম পর্যায়ে ইকুইটি, পণ্য, মুদ্রা এবং সুদের হার নিয়ে বাণিজ্য করবে| পরে আরও পণ্য বাণিজ্য করবে| এশিয়া, আফ্রিকা এবং ইউরোপের বিভিন্ন কোম্পানি এই গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক এক্সচেঞ্জ থেকে অর্থ সংগ্রহ করতে পারবে।

খবরে বলা হয়, আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারীদের বাজারে প্রবেশের সুযোগ দিতে এই মার্কেট ২২ ঘণ্টা খোলা থাকবে। জাপানের বাজার যখন শুরু হয়, তখন এই বাজার শুরু হবে। আর শেষ হবে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে সঙ্গে। এ হিসেবে মাত্র ২ ঘণ্টা এ বাজার বন্ধ থাকবে। বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে এ বাজারে লেনদেন করতে পারবেন বিদেশি ও অ-ভারতীয়রা।

টাইমস অব ইন্ডিয়া আরও জানায়, প্রাথমিকভাবে এই বাজারে ইক্যুইটি ডেরিভেসিভস, কারেন্সি ডেরিভেটিভস ও কমোডিটি ডেরিভেটিভস লেনদেনের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

ডেরিভেটিভস্ হলো এমন একটি ইনস্ট্রুমেন্ট; যার মূল্য সংশ্লিষ্ট অ্যাসেট দ্বারা নির্ধারিত হয়। অ্যাসেট বিভিন্ন ধরনের হতে পারে। বহুল ব্যবহৃত অ্যাসেটগুলো হলো: স্টক, বন্ড, কমোডিটি, কারেন্সি এবং মার্কেট ইনডেক্স। ডেরিভেটিভ মূলত দুই বা ততোধিক পার্টির মধ্যে একটি চুক্তি। এটি বিভিন্ন ধরনের হতে পারে যেমন: ফরওয়ার্ড কন্ট্রাক্ট, ফিউচার কন্ট্রাক্ট, অপসনস্ ইত্যাদি।

বাংলাদেশের বাজারে এ ধরনের পণ্য চালু নেই।

অর্থসূচক/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ