এক এনআইডিতে একাধিক মোবাইল অ্যাকাউন্ট নয়
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এক এনআইডিতে একাধিক মোবাইল অ্যাকাউন্ট নয়

এক  জাতীয় পরিচয়পত্র বা অন্য কোনো পরিচয়পত্রের বিপরীতে একজন গ্রাহক কোনো একটি মোবাইল ফাইন্যান্সসিয়াল সার্ভিস (এমএফএস) সেবাদাতা ব্যাংকে একাধিক হিসাব রাখতে পারবেন না।mobile_banking

বুধবার এই সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়ে একটি সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এটি এমএফএস সেবাদানকারী ব্যাংক ও তার সাবসিডিয়ারী প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক/প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক লীলা রশিদের সই করা ওই সার্কুলারে বলা হয়েছে, একজন ব্যক্তি কোনো এমএফএস প্রোভাইডারের সঙ্গে একাধিক মোবাইল হিসাব চলমান রাখতে পারবেন না। কোনো গ্রাহকের একই জাতীয় পরিচয়পত্র/স্মার্ট কার্ড বা অন্য কোনো পরিচয়পত্রের বিপরীতে কোনো এমএফএসে একাধিক হিসাব থাকলে গ্রাহকের নিজের বিবেচনায় যেকোনো একটি মোবাইল হিসাব চালু রেখে অন্য হিসাবগুলো বন্ধ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

এতে বলা হয়েছে, ‘কতিপয় অসাধু ব্যক্তি এ সেবাটির অপব্যবহার করছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে যা দেশ ও জাতির জন্য ক্ষতিকর। এ প্রেক্ষিতে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস এর অপব্যবহার রোধকল্পে এবং এর সুশৃঙ্খল ও যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতকল্পে নির্দেশনাসমূহ প্রস্তুত করা হয়েছে, যা যথার্থভাবে পরিপালনের জন্য আপনাদেরকে পরামর্শ দেওয়া হলো।’

কোনো ক্ষেত্রে গ্রাহকের সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ দুরূহ হলে যে হিসাবটিতে সর্বশেষ লেনদেন হয়েছে তা চালু রেখে অন্য হিসাবগুলো বন্ধ করতে হবে। এ পদক্ষেপ গ্রহণকালে যে সকল মোবাইল হিসাব বন্ধ করা হবে তার সমুদয় স্থিতি সংশ্লিষ্ট গ্রাহককে পরিশোধ/প্রদান বা হস্তান্তরের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে বলে সার্কুলারে বলা হয়েছে।

একই সার্কুলারে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে লেনদেন সীমাও কমানো হয়েছে।

নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী, ক্যাশ-ইনের ক্ষেত্রে একজন গ্রাহকের দৈনিক সর্বোচ্চ লেনদেনের পরিমাণ ২০ হাজার টাকা থেকে কমিয়ে ১৫ হাজার টাকা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে দিনে তিনবারের বদলে এখন তা দুইবার করা যাবে। আর মাসে লেনদেনের সীমা দেড় লাখ থেকে কমিয়ে এক লাখ টাকা হয়েছে; এখন থেকে তা অনধিক ২০ বার করা যাবে।

আর ক্যাশ-আউটের ক্ষেত্রে গ্রাহক দিনে দুইবারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা লেনদেন করতে পারবেন। আর এক্ষেত্রে মাসিক লেনদেন সীমা সর্বোচ্চ এক লাখ থেকে কমিয়ে ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছে; আর এ সুযোগটি অনধিক ১০ বার নেওয়া যাবে।

সার্কুলারে দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী, এখন থেকে কোন একটি মোবাইল হিসাবে ক্যাশ-ইন হওয়ার পর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই হিসাব থেকে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকার বেশি নগদ উত্তোলন (ক্যাশ-আউট) করা যাবে না। এ ছাড়া কোনো হিসাবে ৫ হাজার টাকা কিংবা তারচেয়ে বেশি নগদ অর্থ জমা (ক্যাশ-ইন) বা উত্তোলন (ক্যাশ-আউট) করার ক্ষেত্রে গ্রাহককে তার পরিচয়পত্র/স্মার্ট কার্ড বা তার ফটোকপি এজেন্টকে প্রদর্শন করতে হবে এবং এজেন্ট গ্রাহকের জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ রাখবেন।

অর্থসূচক/আমজাদ

এই বিভাগের আরো সংবাদ