কুলিয়ারচরে বিএনপির ১০০ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

কুলিয়ারচরে বিএনপির ১০০ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপির ১০০ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে। কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সভাপতি মো. শরীফুল আলমকে মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে কুলিয়ারচর থানার উপ-পরিদর্শক আবুল হাসেম ও উপ-পরিদর্শক এহসানুল হক বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে ৪৮ জনকে ও অন্য মামলায় ৫২ জনকে আসামি করে মামলা দুইটি দায়ের করেছেন।

shariful_alam

বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সভাপতি মো. শরীফুল আলম

কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ চৌধুরী মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানায়, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শরীফুল আলম সম্প্রতি কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় গতকাল সোমবার তাকে সংবর্ধনার আয়োজন করে কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপি। এ উপলক্ষে ভৈরব থেকে কিশোরগঞ্জ পর্যন্ত বিভিন্ন উপজেলা বিএনপিও সংবর্ধনা এবং পথসভার আয়োজন করে। অন্যান্য উপজেলার মতো কুলিয়ারচর উপজেলার দ্বাড়িয়াকান্দি ও আগরপুরে পথসভার জন্য মঞ্চ তৈরি করে স্থানীয় বিএনপি। কিন্তু রোববার রাতে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা সেই মঞ্চ ভেঙ্গে ফেলে।

এ ঘটনায় আওয়ামী লীগ-বিএনপি নেতা-কর্মীদের মাঝে উত্তেজনা তৈরি হলে উভয়স্থানে পুলিশ অবস্থান নিয়ে বিএনপি কর্মীদের জমায়েতে বাঁধা দেয়। এ ঘটনায় সকাল ১০টার দিকে দ্বাড়িয়াকান্দিতে পুলিশের সাথে স্থানীয় বিএনপিকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

অপরদিকে একই ঘটনা ঘটে উপজেলার আগরপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায়। এ নিয়ে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে পুলিশ সেখানে অবস্থায় নেয়। দুপুর ১২টার দিকে শরীফুল আলমের গাড়িবহর ওই এলাকা অতিক্রমের পর বিএনপি নেতা-কর্মীরা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল ছুড়লে উভয়পক্ষের মাঝে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ ৭/৮ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ ও ব্যাপক লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। এ সময়  বিএনপির পাঁচ কর্মী-সমর্থককে আটক করে পুলিশ ।

মামলার বিষয়ে জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি মো. শরীফুল আলম অভিযোগ করে বলেন, হয়রানীর উদ্দেশ্যে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারসহ নেতা-কর্মীদের হয়রানী না করার আহ্বান জানান শরিফুল আলম।

এই বিভাগের আরো সংবাদ