১৩ ক্লাবে জুয়া খেলায় নিষেধাজ্ঞা বহাল
রবিবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

১৩ ক্লাবে জুয়া খেলায় নিষেধাজ্ঞা বহাল

ঢাকা ক্লাবসহ দেশের ১৩টি অভিজাত ক্লাবে টাকার বিনিময়ে হাউজিসহ সব ধরনের জুয়া খেলার ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছে আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে ঢাকা ক্লাব কর্তৃপক্ষকে আগামী রোববারের মধ্যে লিভ টু আপিল করতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ৪ বিচারপতির পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ এই আদেশ দেয়। আদালতে ঢাকা ক্লাব কর্তৃপক্ষের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ও ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান। রিটকারীর পক্ষে শুনানি করেন প্রাক্তন অ্যাটর্নি জেনারেল এ.এফ. হাসান আরিফ ও আইনজীবী রেদোয়ান আহমেদ।

হাইকোর্ট। ছবি সংগৃহীত

হাইকোর্ট। ছবি সংগৃহীত

রেদোয়ান আহমেদ বলেন, আদালত আদেশে টাকার বিনিময়ে হাউজি, ডাইস, তাসসহ যেকোনো ধরনের জুয়া খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন। আগামী রোববার বিষয়টি আবার শুনানির জন্য কার্যতালিকায় আসবে।

গত ৪ ডিসেম্বর জনস্বার্থে সুপ্রিম কোর্টের দুই আইনজীবীর করা রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে ঢাকা ক্লাবসহ দেশের ১৩টি অভিজাত ক্লাবে টাকার বিনিময়ে হাউজিসহ সব ধরনের জুয়া খেলা থেকে বিরত থাকার নির্দেশনা দেয় হাইকোর্ট। রিট আবেদনটি দায়ের করেছিলেন ব্যারিস্টার মোহাম্মদ সামীউল হক ও রোকন উদ্দিন মো. ফারুক। তাদের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন রেদোয়ান আহমেদ রানজীব।

১৩ ক্লাব হলো- ঢাকা ক্লাব, উত্তরা ক্লাব, গুলশান ক্লাব, ধানমন্ডি ক্লাব, বনানী ক্লাব, অফিসার্স ক্লাব ঢাকা, ঢাকা লেডিস ক্লাব, ক্যাডেট কলেজ ক্লাব, চিটাগাং ক্লাব, চিটাগাংসিনিয়রস ক্লাব, নারায়ণগঞ্জ ক্লাব, সিলেট ক্লাব ও খুলনা ক্লাব।

স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ঢাকা মহানগর, চট্টগ্রাম মহানগর, খুলনা মহানগর, সিলেট মহানগরের পুলিশ কমিশনার, র‌্যাবের মহাপরিচালক, ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা, নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসকদের আদালতের এ আদেশ পালন করতে বলা হয়।

অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ ছাড়াও ওইদিন রুল জারি করা হয়। রুলে অভ্যন্তরীণ খেলার নামে কার্ড, ডাইস ও হাউজি খেলার বেআইনি ব্যবসা আয়োজনকারীদের বিরুদ্ধে কেন যথাযথ পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেওয়া হবে না- তা জানতে চাওয়া হয়।

গত মঙ্গলবার ঢাকা ক্লাবের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের আদেশ একদিনের জন্য স্থগিত করে শুনানির জন্য পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠানোর আদেশ দেয় আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। ওই দিনই বৃহস্পতিবার শুনানির ঠিক করা হয়েছিল।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ