গণমাধ্যমের উপর হামলার প্রতিবাদে আরজেএফ’র মানববন্ধন

rjf_jashim_badolরাজনৈতিক কর্মসুচিতে সাংবাদিকদের উপর হামলা, সংবাদপত্র ও গাড়িতে আগুন, সাধারণ মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা, বেসরকারী ও রাষ্ট্রীয় সম্পদ বিনষ্টের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে রুরাল জার্নালিষ্ট ফাউন্ডেশন (আরজেএফ)।

শনিবার বেলা ১২টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আরজেএফ’র উদ্যোগে এক সামাজিক মানববন্ধনে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, রাজনৈতিক সংগঠনগুলো শান্তিপূর্ণভাবে তাদের কর্মসুচি পালন করবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এসব কর্মসুচিতে গণমাধ্যম কর্মীদের উপর হামলা এবং গণমাধ্যমের গাড়ীতে অগ্নিসংযোগ করছে রাজনৈতিক কর্মীরা। যা অত্যন্ত নিন্দনীয়।

রাজনৈতিক দলগুলো অভিযুক্ত করে বক্তারা বলেন, দলগুলো তাদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনের নামে দেশকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। আর পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ আন্দোলনের বলি  হচ্ছে গণমাধ্যম কর্মীরা। আর এ অবস্থায় সাংবাদিকদের সব সময় আতঙ্কের মধ্য দিয়ে দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। তাই গণমাধ্যম কর্মীদের উপর এসব হামলার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।

এ সময় দুই দলের সমঝোতার মাধ্যমে দেশের রাজনৈতিক সমস্যা সমাধানের উপর গুরুত্ব দিয়ে তারা বলেন, সাংবাদিকসহ দেশের মানুষের নিরাপত্তার জন্য দুই দলের নেতাদের শিগগির সমঝোতায় বসে দেশে শান্তি ফিরে আনা উচিত।

এ সময় সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনির হত্যার বিচার সহ সাংবাদিকদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সরকারকে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানান তারা।  যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকে বাধাগ্রস্ত করতে খালেদা এসব ধ্বংসাত্বক কর্মসুচি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তারা।

আরজেএফ’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এস.এম জহিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে এসময় আরও  বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের যুগ্ম মহাসচিব মো. আল-আমিন শাওন, দপ্তর সম্পাদক নার্গিস জুঁই, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল খালেক ছানুবী, ঢাকা মহানগর শাখার সমন্বয়ক মো. উজ্জ্বল খান, স্থায়ী কমিটির সদস্য খোন্দকার এরফান আলী বিপ্লব, মোঃ আফজাল হোসেন প্রমুখ।

জেইউ/