'পণ্যের মান যাচাইয়ে বিএসটিআইকে আরও সতর্ক হতে হবে’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » চট্টগ্রাম ও বন্দর

‘পণ্যের মান যাচাইয়ে বিএসটিআইকে আরও সতর্ক হতে হবে’

খাদ্য পণ্যের মান যাচাইয়ের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস্‌ অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনকে (বিএসটিআই) আরও কার্যকর পদেক্ষেপ নিতে হবে। পণ্যের মান যাচাই করার ক্ষেত্রে আরও বেশি সর্তক হতে হবে। যাতে করে প্রকৃত উৎপাদনকারীরা সমস্যায় না পড়েন।

আজ মঙ্গলবার ৪৭তম বিশ্বমান দিবস উদযাপন উপলক্ষে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। আলোচনা সভার আয়োজন করে বিএসটিআইয়ের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক অফিস।

world_standard_dayআলোচনা সভায় চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. মমিনুর রশীদ বলেন, ভোক্তাদের জন্য মান সম্পন্ন পণ্য নিশ্চিত করার জন্য প্রশাসন ও বিএসটিআই যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ভেজাল পণ্য উৎপাদনকারীদের সাথে কোনো আপোষ করা হবে না। ভেজাল পণ্য উৎপাদনকারীদের সচেতন ও সংশোধনের লক্ষ্যে তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান অব্যহত থাকবে।

বিএসটিআই চট্টগ্রাম আঞ্চলিক অফিসের অফিস প্রধান মো. শওকত ওসমান বলেন, দেশের শিল্পায়ন তরান্বিত করার স্বার্থে উৎপাদনকারীদেরকে পণ্য উৎপাদনে যথাযথ মান অনুসরন করতে হবে।

সভায় চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি এবং এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, বিএসটিআইয়ের জনবল এবং পরীক্ষণের যন্ত্রপাতি বাড়াতে হবে।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো. রুহুল আমীন বলেন, জাতিগত উন্নয়নের জন্য মানসম্মত পণ্য গুরুত্বপূর্ণ। নিম্মমানের খাদ্য পণ্য বিভিন্ন স্বাস্থ্যগত সমস্যার সৃষ্টি করে। তাই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে পণ্যের সঠিক মান নিশ্চিত করা জরুরি।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম চেম্বারের পরিচালক মাহফুজুল হক শাহ, বনফুল অ্যান্ড কোং এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও  চট্টগ্রাম চেম্বারের পরিচালক এম এ মোতালেব ও বিভিন্ন শিল্প কারখানার মালিক/প্রতিনিধিরা।

সুমন/এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ