উন্নত গ্রাহকসেবাই আইডিএলসির চ্যালেঞ্জ: আরিফ খান
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

উন্নত গ্রাহকসেবাই আইডিএলসির চ্যালেঞ্জ: আরিফ খান

পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক খাতের কোম্পানি আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের প্রধান চ্যালেঞ্জ হলো উন্নত গ্রাহকসেবা। অভিনব প্রোডাক্ট উপস্থাপনের মাধ্যমে এই চ্যালেঞ্জ জয় করে আইডিএলসিকে একটি নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা।

চলতি বছরের ৯ মাসের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আরিফ খান।

আইডিএলসি ফিন্যান্সের ৯ মাসের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আরিফ খান

আইডিএলসি ফিন্যান্সের ৯ মাসের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আরিফ খান

আরিফ খান বলেন, ব্যবসার সকল বিভাগ- এসএমই, কনজ্যুমার, কর্পোরেট, ডিপোজিট, ক্যাপিটাল মার্কেট অপারেশনস ও মানি মার্কেট অপারেশনস চলতি অর্থবছরে উল্লেখযোগ্য উন্নতি অর্জন করেছে আইডিএলসি। এই সমষ্টিগত প্রচেষ্টার ফলাফল হিসাবে আইডিএলসি গত ৯ মাসে রেকর্ড পরিমাণ মুনাফা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

কোম্পানির অার্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, আলোচিত সময়ে আইডিএলসির পরিচালন আয় বেড়েছে ১১ শাতাংশ। একই সময়ে গত বছরের তুলনায় নিট মুনাফা ১৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। আর গ্রাহক সম্পদ বেড়েছে ১০ শতাংশ। এসময়ে আইডিএলসির বহরে ৬ হাজার ২৭৭ জন নতুন গ্রাহক যুক্ত হয়েছে। যার ফলে মোট গ্রাহক সম্পদ ১০ শতাংশ বেড়ে ৫৪১ কোটি ৮০ লাখ টাকায় উন্নীত হয়েছে।

আইডিএলসি ফিন্যান্সের ৯ মাসের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আরিফ খান

আইডিএলসি ফিন্যান্সের ৯ মাসের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আরিফ খান

আরিফ খান মনে করেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাদের দলগত চেষ্টা, কর্মদক্ষতা এবং পরিচালনা পর্ষদের বিচক্ষণ নির্দেশনার ফলে এটি সম্ভব হয়েছে। আগামী দিনগুলোতেও ব্যবসার এই প্রবৃদ্ধির ধারা বজায় থাকবে বলে আশা করেন তিনি।

তিনি বলেন,আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে বছরের বাকি সময় এই অর্জনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা। এছাড়াও আইডিএলসির অবকাঠামো, কর্মী, কর্মপ্রক্রিয়া ও কর্মস্থল উন্নয়নেও ২০১৬ অর্থবছরে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বিনিয়োগ করেছে। আগামী দিনে আমাদের পোর্টফোলিওর মান আরও বৃদ্ধি করা হবে।idlc-1

গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগের কথা উল্লেখ করে প্রতিষ্ঠানটির সিইও বলেন, এর মধ্যে রয়েছে ৪টি নতুন শাখা অফিসের উদ্বোধন, দুটি গুরুত্বপূর্ণ অফিস (গুলশান ও দিলকুশা) আরও বড় ও সুবিধামতো পরিসরে স্থানান্তরকরণ, অনলাইন ক্রেডিট এ্যাপ্রেইসাল সিস্টেম-এর প্রবর্তন, আইএফসির সহায়তায় এসএমই ক্রেডিট স্কোরের প্রবর্তন এবং ডিজিটাল মার্কেট জগতে সফল অনুপ্রবেশ।

আরিফ খান বলেন, আইডিএলসির কর্মকর্তারা বিশ্বাস করে- আমাদের আরও মানোন্নয়নের সুযোগ আছে। আমরা প্রতিমুহূর্তে আগের চাইতে ভালো এবং উন্নত সেবা প্রদানে বদ্ধপরিকর।

অর্থসূচক/গিয়াস/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ