'লংমার্চে গেলে রামপালবিরোধীরা ধাওয়া খেতে পারেন'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

‘লংমার্চে গেলে রামপালবিরোধীরা ধাওয়া খেতে পারেন’

সুন্দরবনের রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের সর্তক করে সাবেক বন ও পরিবেশমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, দক্ষিণ বাংলায় রামপালবিরোধীরা লংমার্চ করতে গেলে এবার ধাওয়া খেতে পারেন।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাস্তবায়নের দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে এ কথা বলেন তিনি।

হাছান মাহমুদ বলেন, যে এলাকায় বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন হচ্ছে, ওই এলাকার মানুষ কোনো লংমার্চ করছে না। কিন্তু ঢাকায় বসবাসকারী উন্নয়নবিরোধী গোষ্ঠী লংমার্চ করতে দক্ষিণ বাংলায় যায়। এবার সেখানে রামপালবিরোধী লংমার্চ করতে গেলে আন্দোলনকারীরা ধাওয়া খেতে পারেন।

আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে উৎসাহ ভালো। কিন্তু অতি উৎসাহ ভালো না।

হাছান মাহমুদ বলেন, ইউনেস্কো রামপালের বিরুদ্ধে যে প্রতিবেদন দিয়েছে, তা দেশের আন্দোলনকারীদের দ্বারা প্রভাবিত হয়েই দিয়েছে।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বলেন, গতকাল বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ইউনেস্কোকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র বিজ্ঞান সম্মতভাবেই নির্মাণ হচ্ছে। এটা পরিবেশের কোনো ক্ষতি করবে না। আশা করি ইউনেস্কো বুঝতে পারবে, তাদের প্রতিবেদনটি ভুল ছিল।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন পৃথিবীকে অবাক করে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে চলেছে, তখন যারা দেশের উন্নয়ন চায় না তারা দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।

আয়োজক সংগঠন বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি হাসিবুর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা এম.এ. করিম, শাহজাহান আলম সাজু, সবুজবাগ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লায়ন চিত্তরঞ্জন দাস, স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ প্রমুখ।

অর্থসূচক/মাইদুল/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ