চলে গেলেন সৌদির শেষ লালঝাণ্ডার বাহক
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

চলে গেলেন সৌদির শেষ লালঝাণ্ডার বাহক

পৃথিবীর রাজনৈতিক ইতিহাসে সব সময়ই দেখা গেছে কমিউনিজম বা সাম্যবাদকে বরাবরই ধর্মের মুখোমুখী দাঁড় করানো হয়েছে। আর এ কারণেই ধর্মভিত্তিক দেশগুলোতে বরাবরই উপেক্ষিত থেকেছে এই আদর্শটি।

তবুও সমাজের নিপীড়িত মানুষের জন্য যারা কথা বলেন, কাজ করেন কোনো প্রতিবন্ধকতা তাদের থামাতে পারে না। কোনো চাপে তারা আদর্শ থেকে পিছপা হন না। আমৃত্যু তারা স্বপ্ন দেখে যান একটা বৈষম্যহীন সমাজের।kingdom-640x411

ইসলামের সূতিকাগার সৌদি আরবের সালেহ মনসুর ছিলেন তেমনই এক সমাজতন্ত্রী বা কমিউনিস্ট। তিনি ছিলেন দেশটির সর্বশেষ সমাজতন্ত্রী আদর্শের ধারক ও বাহক।

ছিলেন বলা এইজন্যই যে, সৌদির ওই সমাজতন্ত্রী লেখক, বুদ্ধিজীবী ও আন্দোলনকর্মী গতকাল এক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন।

সৌদি গেজেটের এক খবরে মনসুরের স্বজনদের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, গতকাল শুক্রবার রিয়াদে রাস্তা পারাপারের সময় একটি গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারান তিনি।

মনসুরের ওই স্বজন জানিয়েছেন, চোখে দেখতে না পাওয়ার কারণেই হয়তো তিনি দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন।

এদিকে এই সমাজতন্ত্রী লেখক, বুদ্ধিজীবী ও আন্দোলনকর্মীর মৃত্যুতে দেশটির সাংস্কৃতিক অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলেও খবরে বলা হয়েছে। খবর অনুসারে মনসুর তার স্পষ্ট বক্তব্যের কারণে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বেশ জনপ্রিয় ছিলেন। একারণে তার মৃত্যুর ঘটনা এখনও দেশটির সাংস্কৃতিক কর্মীদের কাছে অবিশ্বাসের মতো ঠেকছে।

জানা গেছে, স্বজনদের অনুরোধ-আবদার উপেক্ষা করেই তিনি সাধারণ শ্রমিকদের সঙ্গে বসবাস করতেন। তাদের সঙ্গে সুখ-দুঃখ ভাগ করে  নিতেন।

মিশরের দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি জামাল আবদেল নাসেরের অনুপ্রেরণায় তিনি সমাজতন্ত্রের ধারনায় আগ্রহী হন। পরে তিনি আজীবন এই ধারনায় আস্থা রাখেন।

প্রসঙ্গত, মিশরের দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি জামাল আবদেল নাসের নেতৃত্বে ১৯৫২ সালের মিশরীয় বিপ্লব অনুষ্ঠিত হয়েছিল যার মধ্য দিয়ে মিশরের তৎকালীন রাজা প্রথম ফারুকের পতন ঘটে ও মিশরে ব্যাপক শিল্পায়নের সূচনা হয়। এই বিপ্লবের মাধ্যমে নাসেরের বিশেষ রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি বিকশিত হয়েছিল যার মাধ্যমে মধ্যপ্রাচ্যে আরব জাতীয়তাবাদের পাশাপাশি সাম্যবাদী চিন্তাধারার সূচনা ঘটে। নাসেরের রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গির দ্বারা প্রভাবিত হয়ে আলজেরিয়া, লিবিয়া, ইরাক, ইয়েমেনের মতো মধ্যপ্রাচ্যের রাষ্ট্রগুলোতে সাম্রাজ্যবাদবিরোধী চিন্তাধারারও সূত্রপাত ঘটে।

কমিউনিস্ট সালেহ মনসুর ১৯৮০ সালের শেষের দিকে সোভিয়েত রাশিয়ায় সফর করেন। এরপর থেকে তিনি সব সময় লাল টাই এবং শাদা শার্ট পরতেন।

২০১৩ সালে প্রথম সৌদি সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে গত চার দশকে সৌদি সমাজের বদলে যাওয়া নিয়ে কথা বলে সালেহ মনসুর। তখন তিনি বলেন, বর্তমানে আমরা ইট-পাথরের সভ্যতার মধ্যে বাস করছি, যেখানে কেউ তার প্রতিবেশীদের চেনে না।

এই বিভাগের আরো সংবাদ