রাজধানীর ‘অতি ঝুঁকিপূর্ণ’ ভবন অপসারণে সময় বেড়েছে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

রাজধানীর ‘অতি ঝুঁকিপূর্ণ’ ভবন অপসারণে সময় বেড়েছে

রাজধানীতে ‘অতি ঝুঁকিপূর্ণ’ ৩২১টি ভবন অপসারণে ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় দিয়েছে সরকার।

আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মো. শাহ কামাল এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘অতি ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে চিহ্নিত ৩২১টি ভবনের গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে নিজেদের স্থাপনা অপসারণ করতে ভবন মালিকদের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সচিব বলেন, সব ধরনের ইউটিলিটি সার্ভিস বন্ধ করে দিলে ওইসব ভবনে এমনিতেই কেউ থাকতে চাইবে না।

রাজধানীর শাখারি বাজারের একটি ঝুঁকিপূর্ণ ভবন।

রাজধানীর শাখারি বাজারের একটি ঝুঁকিপূর্ণ ভবন।

গত ২৭ এপ্রিল রাজউক ও সিটি কর্পোরেশনকে দেওয়া এক আদেশে এই ৩২১ ভবন অপসারণে এক মাস সময় দিয়েছিল দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের জাতীয় ভূমিকম্প প্রস্তুতি ও সচেতনতা বৃদ্ধি কমিটি। অর্থাৎ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দেওয়া সময় গত ২৭ মে শেষ হয়। ওই সময়ের মধ্যে ভবনগুলো কেন অপসারণ করা হয়নি- সে বিষয়ে কিছুই জানাননি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মো. শাহ কামাল।

তিনি জানান, ঢাকায় ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত ৩২১ ভবনের মধ্যে সরকারি ভবনও রয়েছে। একইসঙ্গে খুলনায় ৪০টি, সিলেটে ৩১টি, চট্টগ্রামে ২৪টি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

২০১৪ সালের ১৫ জুন জাতীয় সংসদে রাজধানীর ৩২১ ভবনকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করার কথা জানান গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলোকে বিশেষ রং দিয়ে চিহ্নিত করে তাতে ‘ঝুঁকিপূর্ণ ভবন’ লেখা সাইনবোর্ড টাঙিয়ে দিতে রাজউক ও সিটি কর্পোরেশনকে নির্দেশ দিয়েছিল সরকার।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ