মার্জার (Merger) কি?
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » পাঠশালা

মার্জার (Merger) কি?

merger, beximco, beximco textile, shinepukur holdingsমার্জার হচ্ছে দুই বা ততোধিক কোম্পানির একীভূতকরণ। দুই বা ততোধিক বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের এক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হওয়া। অ্যামালগেমেশন (Amalgmation), টেকওভার (Takeover) এবং অ্যাকুইজেশন (Acquisition) শব্দগুলোও একই বিষয় বুঝাতে ব্যবহৃত হয়। যদিও এদের মধ্যে সূক্ষ্ম কিছু পার্থক্য রয়েছে।

মার্জারের ক্ষেত্রে যে কোম্পানিটি অপর কোম্পানিতে বিলীন হয় তার শেয়ারের পরিবর্তে বিদ্যমান কোম্পানির শেয়ার ইস্যু করা হয়। কি হারে শেয়ার বিনিময় হবে তা উভয় কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের বৈঠকে চূড়ান্ত করা হয়। পর্ষদের সিদ্ধান্তের পর তার জন্য উচ্চ আদালতের অনুমতি নিতে হয়। আদালতের রায়ের পর সংশ্লিষ্ট কোম্পানিগুলোর বিশেষ সাধারণ সভা বা ইজিএম আহ্বান করে শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদন নিতে হয়।

মার্জারের ক্ষেত্রে যে কোম্পানি বা কোম্পানিগুলো অপর কোম্পানির সঙ্গে একীভূত হয় সেই কোম্পানি বা কোম্পানিগুলো তাদের অস্তিত্ব হারায়। ধরা যাক-এ, বি ও সি তিনটি আলাদা কোম্পানি। তারা একীভূত হওয়ার সিদ্ধান্ত নিল। সিদ্ধান্ত অনুসারে এ ও বি কোম্পানি সি কোম্পানির সঙ্গে একীভূত হল। এ ক্ষেত্র একীভূতকরণের দিন থেকে এ ও বি কোম্পানির কোনো অস্তিত্ব থাকবে না। পূর্ব ঘোষিত বিনিময় হারে এ ও বি কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদেরকে সি কোম্পানির শেয়ার দেওয়া হবে। তাদের আগের শেয়ার বাজেয়াপ্ত হয়ে যাবে।

কোম্পানিগুলো পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হলে একীভুতকরণ কার্যকরের দিন থেকে এ ও বি কোম্পানি তালিকাচ্যুত হবে। এ নামে কোনো কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হবে না।

সাধারণত প্রফিট ম্যাক্সিমাইজ তথা মুনাফা বাড়ানো, ক্ষেত্র বিশেষে লোকসান কমানোর কৌশল হিসেবে দুই বা ততোধিক প্রতিষ্ঠানকে এক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তর করা হয়। এর ফলে প্রতিষ্ঠানে প্রশাসনিক ব্যয়সহ নানা ধরনের কমে আসে। তবে আমাদের পুঁজিবাজারে মার্জারের অভিজ্ঞতা তেমন ভাল নয়। বেশ কয়েকটি কোম্পানি একীভুত হলেও তাতে কোম্পানির মুনাফায় তেমন পরিবর্তন আসেনি। কপাল খুলেনি কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদের। বরং কোনো কোনো ক্ষেত্রে শেয়ার বিনিময়ের ক্ষেত্র ব্যাপক লোকসানের মুখে পড়েছেন শেয়ারহোল্ডাররা।

আমাদের পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে একীভূতকরণ শুরু হয় বেক্সিমকো গ্রুপের মাধ্যমে। ২০০৬ সালে বেক্সিমকো নিটিং,বেক্সিমকো ডেনিমস ও পদ্মা টেক্সটাইল লিমিটেড বেক্সিমকো টেক্সটাইলের সঙ্গে একীভ’ত হয়।একই বছরে বেক্সিমকো ইনফিউশন লিমিটেড গ্রুপের অপর কোম্পানি বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের সঙ্গে একীভূত হয়।

অন্যিদকে২০০৮ সালে বেক্সিমকো লিমিটেডের ছায়াতলে বিলীন হয় বেক্সিমকো ফিশারিজ ও শাইনপুকুর হোল্ডিংস।

২০১১ সালে বেক্সিমকো টেক্সটাইল লিমিটেড আবার বেক্সিমকো লিমিটেডের সঙ্গে একীভ’ত হয়।

বেক্সিমকোর দেখানো পথ ধরে পরে সামিট গ্রুপও মার্জারকে তাদের কাজে লাগায়। ২০১২ সালে সামিট অ্যালায়েন্স পোর্টের সঙ্গে একীভূত হয় ওশান কন্টেনার পোর্ট লিমিটেড।

অবশ্য তারও আগে ২০১০ সালে কেয়া কসমেটিকস ও কেয়া ডিটারজেন্ট একীভূত হয়।

সূত্র: পুঁজিবাজার শব্দকোষ

এই বিভাগের আরো সংবাদ