রংপুরে উৎপাদনশীলতা দিবস উদযাপিত
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

রংপুরে উৎপাদনশীলতা দিবস উদযাপিত

দেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত ও সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে উৎপাদনশীলতাকে জাতীয় আন্দোলনে রূপ দিতে সারাদেশের ন্যায় রংপুরেও জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস-২০১৬ উদযাপিত হয়েছে।

রংপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সহযোগিতায় এ দিবস উদযাপিত হয়।

রংপুরে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস-২০১৬ উপলক্ষ্যে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী রংপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ রাহাত আনোয়ার ও রংপুর চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মোঃ আবুল কাশেম এর নেতৃত্বে রংপুর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।

রংপুরে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস-২০১৬ উপলক্ষ্যে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী রংপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ রাহাত আনোয়ার ও রংপুর চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মোঃ আবুল কাশেম এর নেতৃত্বে রংপুর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।

জাতীয় পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে দেশের শিল্প, কৃষি, সেবাসহ বিভিন্ন খাতে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে এ দিবসটি উদযাপন করা হয়।

এবারের দিবসটির মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘‘টেকসই প্রবৃদ্ধির জন্য উৎপাদনশীলতা অপরিহার্য’’। দিবসটি উপলক্ষে রংপুরে সকালে বর্ণাঢ্য র্যা লী ও জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

রংপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ড. এ.টি.এম মাহবুব-উল করিম এর সভাপতিত্বে আলোচনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুরের জেলা প্রশাসক মো. রাহাত আনোয়ার। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মোঃ আবুল কাশেম ও রংপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোস্তাইন বিল্লাহ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রংপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ রাহাত আনোয়ার বলেন, জাতি হিসেবে আমাদেরকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে হবে এবং আমাদের সবাইকে আত্মনির্ভরশীল হতে হবে। খাদ্য-বস্ত্রসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী আমাদেরই উৎপাদন করতে হবে। উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি পেলে শ্রমিকরা বেশি মজুরি পাওয়ার পাশাপাশি মালিকরাও অধিক মুনাফা পাবেন। ভোক্তারা পাবেন সস্তায় মানসম্মত পণ্য ও সেবা। সর্বোপরি উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির ফলে সরকারের আয় বাড়বে, শিল্পায়ন ত্বরান্বিত হবে এবং দেশ সমৃদ্ধির সোপানে এগোবে। এর ফলে কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোঃ আবুল কাশেম বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে হলে দেশের সকল সেক্টরে উন্নয়ন বেগবান করার পাশাপাশি উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করতে হবে। উৎপাদনশীলতা আন্দোলন বেগবান করার লক্ষ্যে শ্রমিক, মালিক, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, পেশাজীবী ও গণমাধ্যমসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

আলোচনা সভা ও র্যাষলীতে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ, রংপুর চেম্বার পরিচালনা পর্ষদের কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, রংপুর উইমেন চেম্বারের কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ