হাসিনার অধীনে নির্বাচন করলে এরশাদ শ্রেষ্ঠ দালালে পরিণত হবে: হাফিজ
মঙ্গলবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » রাজনীতি

হাসিনার অধীনে নির্বাচন করলে এরশাদ শ্রেষ্ঠ দালালে পরিণত হবে: হাফিজ

Major Hafizহাসিনা সরকারের অধীনে যদি এরশাদ নির্বাচন করে তাহলে ভারতের শ্রেষ্ঠ দালাল হয়ে মৃত্যুবরণ করবেন বলে মন্তব্য করলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি’র ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

হাফিজ উদ্দিন বলেন, ভারত বাংলাদেশের রাজনীতিতে প্রভাব খাটাচ্ছে। দেশটি যেভাবেই হোক  হাসিনাকেই ক্ষমতায় দেখতে চায়। তাই দেশটির সামান্য একজন পররাষ্ট্র সচিব এরশাদকে বলেছিল, এরশাদ নির্বাচনে না গেলে বিএনপিকে সাথে নিয়ে জামায়াত ক্ষমতায় আসবে। আর এ জন্য নির্বাচনে বিএনপি না আসলেও যে কোনো ভাবেই হোক জাতীয় পার্টিকে দরকার। তাই ভারত কূটকৌশলে এরশাদকে নির্বাচনে অংশ গ্রহণের জন্য চাপ সৃষ্টি করছে।

এরশাদকে উদ্দেশ্য করে সাবেক এ মন্ত্রী বলেন, আপনি কোন পথে অগ্রসর হচ্ছেন তা জাতীর কাছে স্পষ্ট করেন। আপনার শুভ বুদ্ধির উদয় হোক তা সমগ্র জাতি প্রত্যাশা করে। হাসিনার প্রহসনের এ নির্বাচনে গেলে আপনি দেশের মানুষের কাছে ভারতের শ্রেষ্ট দালাল হিসেবে পরিচয় পাবেন। আর মৃত্যুর পর দালাল এরশাদ হিসেবেই মানুষ চিনবে আপনাকে। এ সময়  আওয়ামী লীগের পাতানো নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে অটল থাকতে এরশাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

শেখ হাসিনার একগুয়েমির কারণে দেশ আজ বিদেশি কূটনৈতিকদের আনাগোনায় পরিণত হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিদেশি কূটনৈতিকদের এ আনাগোনা দেশের জন্য শভকর নয়। এভাবে এক সময় বিদেশিরাই দেশ দখলের পাঁয়তারা করবে। তখন বাংলাদেশের স্বধীনতা  হুমকির মুখে পড়বে।

দেশের স্বার্থে, গণতন্ত্র রক্ষায় সরকারকে এখ্নই ক্ষমতা ছাড়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, যত তারাতাড়ি পারেন ক্ষমতা ছাড়েন তা না হলে লাগাতার অবরোধসহ আরও কঠোর আন্দোলন দিয়ে আপনাদের হটানো হবে।

আওয়ামী লীগের সকল নেতা দুর্নীতিগ্রস্থ উল্লেখ করে হাফিজ উদ্দিন বলেন, এ সরকার হলমার্ক, ডেসটিনি, শেয়ার বাজার, ব্যাংক ক্যালেঙ্কারীসহ সকল ক্ষেত্রে দুর্নীতি করেছে। আর এ সরকার দুর্নীতিগ্রস্থ না হলে হাসিনার সার্টিফিকেটপ্রাপ্ত আবুল হোসেনকে কেন নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়া হলো না।

বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মোহাম্মদ ইব্রাহীম বীর প্রতিকের সভাতিত্বে সভায়  আরও বক্তব্য দেন কল্যাণ পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট বেনইয়ামীন, নুরুদ্দিন পিএসসি, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য খালেদা ইয়াসমিন, ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তাফা ভূঁইয়া, এলডিপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদত হোসনে সেলিম, স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।

জেইউ/এএস

এই বিভাগের আরো সংবাদ