'রামপাল প্রকল্পে ইউনেসকোর প্রতিবেদন গবেষণা ভিত্তিক নয়'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘রামপাল প্রকল্পে ইউনেসকোর প্রতিবেদন গবেষণা ভিত্তিক নয়’

রামপাল কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়ে সম্প্রতি ইনেসকো যে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে- তা গবেষণা ভিত্তিক নয় বলে জানিয়েছেন সচেতন ব্যবসায়ীদের সংগঠন প্রগতিশীল বাংলাদেশ।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলেনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন সংগঠনের সভাপতি প্রোকৌশলী কবির আহমেদ ভূঁইয়া।

rampal-power

রামপাল কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প প্রসঙ্গে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলেনায়তনে প্রগতিশীল বাংলাদেশের সংবাদ সম্মেলন।

তিনি বলেন, সরকারবিরোধী কোনো চক্র ইনেসকোকে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র বিষয়ে ভুল তথ্য দিয়ে প্রভাবিত করেছে। ভুল তথ্যের মাধ্যমে প্রভাবিত হয়ে গবেষণা না করেই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তারা।

কবির আহমেদ বলেন, সুন্দরবনের আশপাশের জনবসতির কারণে দিন দিন ধ্বংসের দিকে ঝুঁকে পড়ছে সুন্দরবন। সুন্দরবনের আয়তন ধীরে ধীরে ছোট হয়ে আসছে। ফলে সুন্দরবনের জীব বৈচিত্র্য বিলুপ্ত হচ্ছে।

তিনি প্রশ্ন করেন, এমন পরিস্থিতিতে সুন্দরবনের আয়তন ছোট হওয়া এবং জীব বৈচিত্র্য বিলুপ্ত হওয়ার জন্য কি রামপালই দায়ী?

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খুব স্বল্প সময়ের জরিপের ভিত্তিতে তাদের প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ইউনেসকো। মাত্র ৩ থেকে ৪ দিনে জরিপ কাজ শেষ করেছে সংস্থাটি। স্বল্প সময়ের জরিপের ভিত্তিতে সঠিক তথ্য দিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করা যায় না।

সংবাদ সম্মেলনে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিভিন্ন ইতিবাচক দিক নিয়ে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. কজী বায়জিদ কাবির। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রগতিশীল বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলি ভূঁইয়া, বুয়েটের পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক হাবিবুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান প্রমুখ।

অর্থসূচক/মুন্নাফ/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ