জনসন ঝরে ১৭২ রানেই বিধ্বস্ত ইংল্যান্ড
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » খেলাধুলা

জনসন ঝরে ১৭২ রানেই বিধ্বস্ত ইংল্যান্ড

Australia's Mitchell Johnson (C) holds his cap aloft after taking seven England wickets on the third day of the second Ashes cricket Test match in Adelaide, on December 7, 2013.  AFP PHOTO/William WEST    IMAGE RESTRICTED TO EDITORIAL USE - STRICTLY NO COMMERCIAL USE        (Photo credit should read WILLIAM WEST/AFP/Getty Images)

অষ্ট্রেলিয়ার ৫৭০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে মিশেল জনসনের বোলিং ঝড়ে  নিজেদের প্রথম ইনিংসে ১৭২ রানে বির্ধ্বস্ত হয়ে ফলোয়নে পড়লো ইংল্যান্ড। মাত্র ৪০ রানের বিনিময়ে ৭ উইকেট নিযে একাই নায়ক অষ্ট্রেলিয়ার এ গতির জাদুকর। দ্বিতীয় ইনিংসে তিন উইকেট হারিয়ে ১৩২ রান করা অস্ট্রেলিয়া ইংলিশদের চেয়ে এগিয়ে ৫৩০ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর(তৃতীয় দিন শেষে)

অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস- ৫৭০/৯(ডিক্লে) (ক্লার্ক ১৪৮, হ্যাডিন ১১৮)

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস- ১৭২/১০ (কারবেরি ৬০, বেল ৭০*)

অস্ট্রেলিয় ২য় ইনিংস-১৩২/৩ (ওয়ার্নার-৮২*)

আগের দিনে অধিনায়ক কুকের উইকেটটি হারিয়ে ৩৫ রান নিয়ে শনিবার তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে ইংলিশরা। শুরু থেকে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে মাইকেল কারবেরি, জো রুট ও কেভিন পিটারসেন এর আউটসহ ১১৭ রানে ৪ উইকেট হারালেও তখনও বিভীষিকা রুপে আবির্ভুত হননি জনসন। বিরতির পর জনসনের দ্বিতীয় ওভারে ইংল্যান্ডের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে। ইনিংসের ৫১ তম ওভারে মাত্র পাচ বলে গড়ে ১৪৫ কিলোমিটার বেগে বল করে তুলে নেন অভিষিক্ত বেন স্টোকস, উইকেট রক্ষক ম্যাট প্রায়র ও স্টুয়ার্ট ব্রড এর উইকেট। জনসনের এক ওভারে ৪ উইকেটে ১১৭ থেকে ৭ উইকেটে ১১৭ তে পরিণত হয় ইংল্যান্ড।

ইনিংসের ৫৪ তম ওভারে আবারো হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগিয়ে তুলেন জনসন। ইংল্যান্ডের ১৩৫ রানে দুই বলে তুলে নেন গ্রায়েম সোয়ান ও জেমস এন্ডারসনকে। ৯ উইকেটে ১৩৫ রান হারানো ইংল্যান্ডের এক প্রান্ত আগলে ঠিকই রান তুলে যাচ্ছিলেন ইয়ান বেল। মন্টি পানেসার নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন তিনি।দলীয় ১৭২ রানে ৩৫ বল খেলে ২ রান করে জনসনের বলে  বোল্ড হন তিনি। আর এর মাধ্যমেই শেষ হয় ইংল্যান্ডের ইনিংস।কিন্তু অপর প্রান্তে ৭০ রানে অপরাজিত থাকেন ইয়ান বেল। বেল ও কারবেরির অর্ধ শত রান ছাড়া দলের বাকি আটজনের সর্বোচ্চ স্কোর মাত্র ১৫  (জো রুট)।

৩৯৮ রানে এগিয়ে থেকে ইংল্যান্ডকে ফলোয়নে ফেলেও দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং শুরু করে অষ্ট্রেলিয়া। কিন্তু স্কোরবোর্ডে ৪ রান উঠতেই ২ উইকেট নেই তাদের। উইকেট দুটিই নেন জেমস এন্ডারসন। তবে তিনি জনসন হয়ে উঠতে না পারার কারণে দিনশেষে অষ্ট্রেলিয়ার সেই দু উইকেটে ১৩২ রান। ডেভিড ওয়ার্নার ৮২ রানে অপরাজিত আছেন।
এরআগে অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক ও উইকেটরক্ষক ব্র্যাড হাডিন এর শতকে অ্যাডিলেডের চিরাচরিত ব্যাটিং সহযোগী উইকেটে ১ম ইনিংসে ৫৭০ রান করে অষ্ট্রেলিয়া।

 

নয়ন

এই বিভাগের আরো সংবাদ